Beta

মসজিদে হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের ৭০ হাজার ডলার দিল সেই ‘এগ বয়’

২৯ মে ২০১৯, ১৫:৫১

অনলাইন ডেস্ক

মুসলমানদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় অস্ট্রেলিয়ার বিতর্কিত সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিংয়ের মাথায় ডিম ভেঙে সাড়াজাগানো সেই ‘এগ বয়’ আবার একবার আলোচনায়। তবে এবার ডিম ভেঙে নয়, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক সাহায্য করে এবার আলোচনায় এই কিশোর। সাহায্যের পরিমাণও কম নয়, প্রায় ৭০ হাজার মার্কিন ডলার। সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

গতকাল মঙ্গলবার সামাজিক মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এই সাহায্যের কথা জানায় ‘এগ বয়’ খ্যাত কিশোর উইল কনোলি।

এর আগে সিনেটরের মাথায় ডিম ভাঙার পর কনোলির পক্ষে দাঁড়িয়ে আরো ডিম কেনার জন্য অনলাইন তহবিলে অর্থ সাহায্য দেন অনেকেই। ‘গো ফান্ড মি’ নামে দুটি পেজের মাধ্যমে তহবিলে ৭০ হাজার ডলার জমা হয়।

কনোলির বিরুদ্ধে পুলিশ আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো অভিযোগ দাখিল না করলেও তাকে ‘সরকারিভাবে সতর্ক’ করা হয়।

আর এর পরই গতকাল নিজের ইনস্টাগ্রামে তহবিলে জমা হওয়া সব অর্থ ক্রাইস্টচার্চ হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের দেওয়ার কথা জানায় এই ‘এগ বয়’।

এ ছাড়া যাঁরা তহবিলে অর্থ সাহায্য করেছেন, তাঁদের সবাইকে ধন্যবাদ জানায় কনোলি।

গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে নির্বিচারে গুলি করে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারান্ট। এ হামলায় মসজিদে নামাজ পড়তে আসা অন্তত ৫১ মুসল্লি নিহত হন।

এ হামলার পরই অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিং মুসলমানদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের ওই ঘটনার প্রকৃত কারণ হচ্ছে অভিবাসন কর্মসূচি, যা উগ্র মুসলিমদের নিউজিল্যান্ডে থাকার অনুমোদন দিচ্ছে।’

এরপরই বেশ তোপের মুখে পড়েন ফ্রেজার অ্যানিং। এরই প্রতিবাদে তাঁর মাথায় ডিম ভাঙে কিশোর উইল কনোলি। কনোলিকে পুলিশ আটকও করে। কিন্তু পরে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনার পরই সামাজিক মাধ্যমে উইল কনোলিকে নিয়ে রীতিমতো হৈচৈ শুরু হয়ে যায়। আর ডিম ভাঙার জন্য ‘এগ বয়’ নামেও পরিচিত হয়ে ওঠে সে।

Advertisement