Beta

কাশ্মীর ইস্যুতে চীনে আস্থা পাকিস্তানের

০৯ আগস্ট ২০১৯, ১১:১০

অনলাইন ডেস্ক
পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। ছবি : এনটিভি

কাশ্মীরের ‘বিশেষ মর্যাদা’ বিলোপ প্রসঙ্গে আজ শুক্রবার সকালে চীন সরকারের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করতে বেইজিংয়ের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। সেখানে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলবেন তিনি। বার্তা সংস্থা আইএএনএস এ খবর জানিয়েছে।

আজ সকালে বেইজিংয়ের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগে মেহমুদ কুরেশি বলেন, ‘ভারত অসাংবিধানিকভাবে ব্যবস্থা নিয়ে আঞ্চলিক শান্তি বিঘ্নিত করতে চাইছে।’

চীনকে পাকিস্তানের বন্ধুরাষ্ট্র উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুরেশি বলেন, ‘চীন শুধু পাকিস্তানের বন্ধু নয়, এ অঞ্চলের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশও।’ বর্তমান পরিস্থিতিতে চীনা নেতৃত্বের ওপর পাকিস্তান আস্থা রাখবে বলেও জানান কুরেশি।

চীন সফরে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুরেশির সঙ্গে রয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব সোহেল মাহমুদ ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

গত সোমবার ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেয় ভারত সরকার। ৩৭০ অনুচ্ছেদের কারণে জম্মু ও কাশ্মীর অন্য যেকোনো ভারতীয় রাজ্যের চেয়ে বেশি স্বায়ত্তশাসন ভোগ করত। এর পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার প্রস্তাব দেওয়া হয়। ওই প্রস্তাবে জানানো হয়, জম্মু-কাশ্মীরে আইনসভা থাকবে, কিন্তু লাদাখে কোনো আইনসভা থাকবে না।

Advertisement