Beta

জমজ সন্তানের মা হলেন ৭৪ বছর বয়সী নারী

০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৫২

অনলাইন ডেস্ক
৭৪ বছর বয়সে জমজ সন্তানের মা হয়েছেন ভারতীয় এক নারী। ছবি : সংগৃহীত

বিবাহিত জীবনের ৫৭ বসন্ত পার হলেও মা হওয়া হয়নি তাঁর। স্বপ্ন দেখতেন মা হবেন। ব্যস্ত থাকবেন সন্তানদের নিয়ে। কিন্তু স্বপ্ন আর বাস্তব হলো কোথায়?

অবশেষে অপূর্ণ ইচ্ছা পূরণ হয়েছে ওই নারীর। তাঁর বয়স এখন ৭৪ বছর! গত বৃহস্পতিবার জমজ মেয়ের মা হয়েছেন তিনি। ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে ওই ঘটনা ঘটে। ওই নারীর নাম মান গায়াম্মা।  

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশের একটি বেসরকারি হাসপাতালে   ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ) বা টেস্টটিউব পদ্ধতির মাধ্যমে ওই নারী জমজ সন্তানের জন্ম দেন।

চিকিৎসক সানাক্কায়ালা অরুণার অধীনে মান গায়াম্মার অস্ত্রোপচার হয়। ডা. অরুণা বলেছেন, ‘নবজাতকরা ও তাদের মা এখন নিরাপদে আছেন। ভালো আছেন।  তাদের শারীরিক অবস্থাও আছে স্বাভাবিক।’

মান গায়াম্মা অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার দ্রাক্ষারামামের বাসিন্দা।  ১৯৬২ সালে ই রাজা রাওয়ের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। রাজা রাওয়ের বয়স এখন ৮০ বছর। বিয়ের এতটা বছর পার হলেও মা হওয়ার ইচ্ছা ফুরিয়ে যায়নি ওই দম্পতির। ইচ্ছাশক্তি প্রবল হয়েছে যখন তাঁরা দেখেন তাঁদের এক প্রতিবেশী ৫৫ বছর বয়সে ‘আর্টিফিশিয়াল ইনসেমিনেশনের’ মাধ্যমে সন্তান জন্ম দিয়েছেন। এ ঘটনার পরেই মান গায়াম্মা ‘আইভিএফ’ পদ্ধতি অনুসরণ করার সিদ্ধান্ত নেন।

গত বছরের নভেম্বরে ডা. অরুণার কাছে যান তিনি। এই চিকিৎসকের অধীনেই আইভিএফের মাধ্যমে এ বছর জানুয়ারিতে সন্তানসম্ভবা হন মান গায়াম্মা।

বয়স বেশি হওয়ার কারণে সন্তানসম্ভবা হওয়ার পর থেকেই হাসপাতালে  অভিজ্ঞ চিকিৎসকের অধীনে ছিলেন তিনি।

ডা. অরুণা জানিয়েছেন, মান গায়াম্মার  ডায়াবেটিস কিংবা রক্তচাপ ছিল না। তিনি স্বাস্থ্যবান। কেবল বয়স বেশি হওয়ায় অস্ত্রোপচার করেছেন তাঁরা।

এদিকে বেশি বয়সে মা হওয়ার ক্ষেত্রে ভারতে নতুন নয়। ২০১৬ সালে ৭২ বছর বয়সী পাঞ্জাবের এক নারী টেস্টটিউব পদ্ধতির মাধ্যমে মা হয়েছেন। ২০০৮ সালে ৭০ বছর বয়সে মা হন হরিয়ানার এক নারী। চিকিৎসকের মতে ৩৫ বছর পর নারীদের মা হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

Advertisement