Beta

ফক্সভাগন গাড়িতে নিরাপত্তা ঝুঁকি

১৪ আগস্ট ২০১৬, ১৭:৪৬ | আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২০:৩৩

জার্মান গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফক্সভাগনের খ্যাতি বিশ্বজোড়া। কিন্তু সাম্প্রতিক এক গবেষণায় প্রকাশ পেয়েছে, এই গাড়িগুলোর নিরাপত্তাব্যবস্থা অত্যন্ত দুর্বল। কিঞ্চিৎ বুদ্ধি খাটালেই যে কেউ ফক্সভাগন গাড়ি চুরি করতে পারে। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেট ডটকম জানিয়েছে এ খবর।

কীভাবে এই চুরি সম্ভব? এর উত্তর পেতে ওয়্যারলেস চাবি সম্পর্কে একটু ধারণা থাকা দরকার। অধিকাংশ ফক্সভাগন গাড়িতেই আক্ষরিক অর্থে কোনো চাবি ব্যবহার করতে হয় না। বিশেষ একটি কোডের মাধ্যমে গাড়ি লক বা আনলক করা হয়। আর ঠিক এই সুযোগটিই কাজে লাগাতে পারে গাড়িচোরেরা।

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় ও জার্মান একটি ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠানের একদল গবেষক প্রমাণ করেছেন, একটি রেডিও হার্ডওয়্যারের মাধ্যমে খুব সহজেই ফক্সভাগনের ওয়্যারলেস চাবির সিগন্যাল বের করা সম্ভব। এর পরে এই সিগন্যাল ব্যবহার করে নকল চাবি তৈরি করে গাড়ি নিয়ে চম্পট দেওয়া খুবই অল্প সময়ের ব্যাপার। গাড়ির ৩০০ ফুটের মধ্যে থাকলেই চোর এই কাজ করতে পারবে।

স্বভাবতই ফক্সভাগন কর্তৃপক্ষের নড়েচড়ে বসার কথা এ খবরে। তারা এক বিবৃতিতে বলেছে, তাদের গাড়িগুলোর নিরাপত্তা আরো জোরদার করার জন্য শিগগিরই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে। সেই সঙ্গে গবেষকদলকে অনুরোধও করেছে, যাতে তারা এসব স্পর্শকাতর তথ্য বাইরে প্রকাশ না করে।

অবশ্য ফাঁড়াটা যে কেবল ফক্সভাগনের ওপর দিয়েই যাবে, তা নয়। ওই একই গবেষকদল বলেছে, তারা মিতসুবিশি, ফিয়াট বা ফোর্ডের মতো নামী গাড়িগুলোর নিরাপত্তার ত্রুটিও বের করেছে। কাজেই বলা যায়, সবার মাঝেই শঙ্কা কাজ করছে। সম্প্রতি পরিবেশবাদীরা ফক্সভাগনের বিরুদ্ধে বেশ সোচ্চার হয়ে উঠেছে, কারণ তাদের গাড়িগুলোতে অতিমাত্রায় ডিজেল ব্যবহার করা হয়। তার মধ্যে আবার এই চুরি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা নিশ্চিতভাবেই ফক্সভাগনের বাজারে প্রভাব ফেলবে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement