Beta

বিশ্ব পর্যটন দিবস

ভালো পর্যটক হয়ে উঠবেন কীভাবে?

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ১৭:৪৫

ফিচার ডেস্ক
ঘুরতে ঘুরতে পৃথিবীকে চেনাটাই পর্যটকের কাজ। ছবি : উইকি হাউ ডটকম

আজ ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব পর্যটন দিবস। ভ্রমণের নেশা মানুষের বেশ পুরোনো। যখন এত আধুনিক প্রযুক্তি বা যানবাহন ছিল না, তখনো মানুষ পায়ে হেঁটে বা জাহাজে চড়ে ভ্রমণে বেরিয়েছে। পর্যটকরা এক দেশ থেকে আরেক দেশে গিয়েছেন মানুষের সংস্কৃতি, ভাষা সম্পর্কে জানতে। সেগুলো লিখেও রেখেছেন তাঁরা। কীভাবে একজন ভালো পর্যটক হওয়া যায়, সে বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য জানিয়েছে উই থ্রি ট্র্যাভেল ডটকম।

১. মানচিত্র সম্পর্কে জানুন

ভ্রমণে বের হওয়ার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হলো ভূগোলটা ঠিকমতো জেনে নেওয়া। সেটা দেশে হোক কিংবা দেশের বাইরে অন্য কোথাও। সবার আগে মানচিত্রটা ভালো করে দেখে নিতে হবে। তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন কোথা থেকে আপনাকে শুরু করতে হবে বা আসলে আপনি কী দিয়ে শুরু করতে চান। কারো আগ্রহ থাকে দর্শনীয় স্থান দেখার প্রতি, কারো থাকে ভাষা এবং সংস্কৃতির প্রতি, কেউ আবার রাজনৈতিক ইতিহাসকে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। নিজের লক্ষ্য ঠিক করুন, শুধুই ঘুরে বেড়ানো পর্যটকের কাজ নয়। বরং ভ্রমণ থেকে শেখাটাই পর্যটকের কাজ।

২. সঠিক পরিকল্পনা

হুট করে ঘুরতে বেরিয়ে যাওয়াটা পর্যটকের লক্ষণ নয়। বরং ভেবেচিন্তে সময় বের করে আগে থেকে পরিকল্পনা করে ঘুরতে যাওয়াটাই একজন পর্যটকের কাজ। আর সে জন্য প্রয়োজন সঠিক পরিকল্পনা। কোথায় কোথায় যাবেন, কয়দিন থাকবেন, থাকার কী ব্যবস্থা, কত টাকা খরচ হবে সব মিলিয়ে নিয়ে বেরিয়ে পড়াটাই একজন ভালো পর্যটকের লক্ষণ।

৩. ভাষা শেখা

শুধু যে নিজের গণ্ডির মধ্যে ঘুরে বেড়াবেন ব্যাপারটা তো সে রকম না। পর্যটকদের ঘোরার নেশা কোনো সীমানায় আটকে থাকে না। তাই ঘোরার সুবিধার্থেই কয়েকটি ভাষা শিখে নিতে পারেন। এমন না যে সবগুলো ভাষাই আপনাকে অনর্গল বলতে বা বুঝতে হবে। কাজ চালিয়ে নেওয়ার জন্য যতটুকু দরকার, ততটুকু হলেই চলবে। এতে আপনি যেখানেই যান সেখানকার মানুষের সংস্কৃতি এবং সমাজব্যবস্থা ভালোমতো বুঝতে পারবেন।  

৪. টাকা জমানো

ভ্রমণের জন্য অর্থ প্রয়োজন। টাকা না থাকলে ঘুরতে যাওয়ার সুযোগ এলেও কাজে লাগাতে পারবেন না। তাই সঞ্চয়ের অভ্যাস গড়ে তুলুন। বছরের নির্দিষ্ট সময়ে ঘুরতে বেরিয়ে পড়ুন আর তার আগে টাকাটা জমিয়ে ফেলুন যাতে কোনো কিছু মিস না হয়।

৫. বই পড়ুন

ভালো পর্যটক হতে গেলে আপনাকে লেখাপড়া করতে হবে। প্রচুর বই পড়তে হবে বিভিন্ন দেশের ভূগোল, ভাষা এবং সাহিত্য সম্পর্কে জানতে হলে। বই পড়ার অভ্যাস না থাকলে আপনার মধ্যে ভ্রমণের আগ্রহ তৈরি হবে না।

৬. সংগ্রহের অভ্যাস

যেখানেই ঘুরতে যান, সেখানকার কিছু স্মৃতি সব সময় সঙ্গে নিয়ে আসবেন। তাহলে দেখবেন ভ্রমণের পাশাপাশি আপনার সংগ্রহও বেশ বড়সড় আকার পেয়ে যাবে। আর এসব আপনার সঙ্গে থেকে যাবে স্মৃতি হিসেবে। বিদেশে গেলে মুদ্রা বা ডাকটিকেট সংগ্রহ করে রাখতে পারেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement