Beta

ইরাকের কুর্দি প্রেসিডেন্ট, শিয়া নেতা প্রধানমন্ত্রী

০৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:০৭ | আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:২৪

রয়টার্স
ইরাকের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির বর্ষীয়ান কুর্দি রাজনীতিক বারহাম সালিহ। ছবি : রয়টার্স

ইরাকের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন দেশটির বর্ষীয়ান কুর্দি রাজনীতিক বারহাম সালিহ। নির্বাচিত হওয়ার পর পরই তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেছেন। এর মধ্য দিয়ে গত মে মাসে নির্বাচনের পর থেকে যে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল, তার অবসান হলো।  

সংবিধান অনুযায়ী, হাতে ১৫ দিন সময় থাকলেও নির্বাচিত হওয়ার দুই ঘণ্টার মধ্যেই শিয়া নেতা আদেল আবদুল মাহদিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন বারহাম সালিহ।

মঙ্গলবার দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এ খবর নিশ্চিত করেছে। আইনপ্রণেতাদের ভোটের লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী ফুয়াদ হুসেইনকে ২১৯-২২ ভোটে পরাজিত করেন বারহাম সালিহ। ইরাকের প্রধান দুই কুর্দি দল কুর্দিস্তান ডেমোক্রেটিক পার্টি ও প্যাট্রিয়টিক ইউনিয়ন অব কুর্দিস্তানের আইনপ্রণেতারা একক প্রার্থীর বিষয়ে সম্মত হতে না পারার কারণে মঙ্গলবার ভোট গ্রহণ বিলম্বিত হয়। মনোনীত ২০ প্রার্থীর মধ্য থেকে একজনকে বেছে নিতে গিয়ে মতবিরোধ দেখা দেয়।

নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বারহাম সলিহ ইরাকি কুর্দিস্তানের আঞ্চলিক সরকারের প্রধানমন্ত্রী এবং ইরাকের কেন্দ্রীয় সরকারের উপপ্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। 

২০০৩ সাল থেকে ইরাকের প্রেসিডেন্টের পদটি অনেকটাই আনুষ্ঠানিক। কুর্দি নেতারাই এই পদ পেয়ে আসছেন। তবে বিবদমান গোষ্ঠীগুলোর ক্ষমতার ভাগাভাগির ক্ষেত্রে এর একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। গোষ্ঠীগুলোর সমঝোতা অনুযায়ী, কুর্দি প্রেসিডেন্ট দেশটির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শিয়া নেতা এবং পার্লামেন্টের স্পিকার হিসেবে সুন্নি নেতাকে মনোনীত করেন।

Advertisement