Beta

নিশানের চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

১৯ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪১ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ২১:৪৭

অনলাইন ডেস্ক

অর্থের অপব্যবহারের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নিশানের চেয়ারম্যান কার্লোস ঘোসনকে। নিশানের পক্ষ থেকে জানানো হয়, কার্লোসের বিরুদ্ধে তদন্তে প্রতিষ্ঠানের অর্থ তছরূপের তথ্য পাওয়া গেছে।

সংবাদ মাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, স্থানীয় সময় আজ সোমবার জাপানে গ্রেপ্তার করা হয় কার্লোস ঘোসনকে। জানা যায়, জনপ্রিয় গাড়ি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান নিশান তাদের চেয়ারম্যান কার্লোস ঘোসনকে অসদাচরণের দায়ে বরখাস্ত করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

প্রতিষ্ঠানটি একটি বিবৃতিতে জানায়, ঘোসনের বিরুদ্ধে কোম্পানির সম্পদের ব্যক্তিগত ব্যবহারসহ অপব্যবহারের অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে।’

শিগগিরই ঘোসনকে চেয়ারম্যান ও প্রতিনিধি পরিচালকের পদ থেকে অপসারণ করার জন্য প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী (সিইও) হিরোটো সাইকাওয়া পরিচালক বোর্ডকে প্রস্তাব দেবেন। তিনি এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, আজ সন্ধ্যায় কার্লোস ঘোসন ও একজন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঘোসনের নেতৃত্বাধীন দুটি গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নিশান ও রেনল্টের মজুদ বন্ধ করে দেওয়ার জন্য সারাবিশ্বের গাড়ি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তিরা বিবৃতি দিয়েছেন।

জানা যায়, রেনল্টে ঘোসনের ১৩ শতাংশ শেয়ার ছিল। এ ব্যাপারে রেনল্ট কোনো মন্তব্য করতে চায়নি।

নিশান এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গত কয়েক মাস ধরে ঘোসন ও গ্রেপ্তার হওয়া অন্য বোর্ড সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, জাপানের আইনজীবী এ ক্ষেত্রে সাহায্য করছে।

নিশানের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘শেয়ারহোল্ডার এবং স্টেকহোল্ডারদের উদ্বেগ সৃষ্টি করার জন্য তাদের কাছে নিশান গভীরভাবে ক্ষমাপ্রার্থী।’

ওই বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ‘আমরা এ বিষয়ে তদারকি চালানোর জন্য এবং বিষয়টি শনাক্ত করতে ও যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে আমাদের কাজ চালিয়ে যাব।’

ঘোসন জাপানের মিতসুবিশি মোটরসেরও (এমএমটিওএফ) চেয়ারম্যান। তবে তাৎক্ষণিকভাবে মিতসুবিশির মন্তব্য পাওয়া যায়নি।  

নিশান, মিতসুবিশি ও রেনল্ট মিলে সারাবিশ্বে গাড়ি নির্মাণ সংক্রান্ত ব্যবসায় আধিপত্য বিস্তার করছে। ওই জোটের ওয়েবসাইটে জানা যায়, প্রায় ২০০ টি দেশে রেনল্ট, নিশান এবং মিতসুবিশির ৪লাখ ৭০ হাজারেরও বেশি কর্মচারী কাজ করছে।

Advertisement