Beta

ক্লিনিকের কর্মীকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ, ২ যুবক গ্রেপ্তার

১০ জুলাই ২০১৯, ১৮:৪৮

ঝালকাঠিতে বেসরকারি ক্লিনিকের এক কর্মীকে দলবেঁধে ধর্ষণের মামলায় মঙ্গলবার গ্রেপ্তার হওয়া রুবেল মোল্লা ও মহিউদ্দিন খানকে সাংবাদিকদের সামনে আনা হয়। ছবি : এনটিভি

ঝালকাঠিতে বেসরকারি ক্লিনিকের এক কর্মীকে (১৯) দলবেধে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের ঘটনা মোবাইল ফোনে ভিডিও করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে নির্যাতিত ওই তরুণীর কাছে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে ধর্ষকরা। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার আগলপাশা গ্রাম থেকে অভিযুক্ত দুই যুবককে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ ও নির্যাতিতের পরিবার জানায়, গত ২৯ জুন রাতে শহরের একটি ক্লিনিকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে আগলপাশা গ্রামের রুবেল মোল্লা ও বিকনা গ্রামের মহিউদ্দিন খান ওই তরুণীকে জোর করে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়। তারা চামটা গ্রামের একটি জঙ্গলের ভেতর পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে যায় ওই তরুণীকে। সেখানে অপেক্ষমাণ আরো তিনজনসহ পাঁচজনে দলবেঁধে তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা মোবাইল ফোনে ধারণ করে রাখা হয়। মেয়েটি তাদের হাত-পা ধরে অনুরোধ করলেও রক্ষা পাননি। এ ঘটনা কাউকে জানালে ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে বখাটেরা। নির্যাতিত ওই তরুণী বাড়িতে গিয়ে পরিবারের লোকজনকে জানায়। তারা বখাটেদের ভয়ে ধর্ষণের বিষয়টি তাৎক্ষণিক কাউকে জানায়নি।

গতকাল মঙ্গলবার ফোন করে রুবেল মোল্লা নির্যাতিত ওই তরুণীর কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা চাইলে তিনি ঝালকাঠি থানায় গিয়ে পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেন। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রুবেল মোল্লা ও মহিউদ্দিন খানকে গ্রেপ্তার করে।

ঝালকাঠি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শোনিত কুমার গায়েন জানান, গ্রেপ্তার করা ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হচ্ছে।

Advertisement