Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

মোবাইলে কোরআনের অ্যাপস নিয়ে সর্বত্র যাওয়া যাবে?

০৬ জুন ২০১৮, ১৯:৩৮

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. আবু বকর মুহাম্মদ জাকারিয়া।

রমজানের বিশেষ আপনার জিজ্ঞাসার অষ্টম পর্বে, মোবাইলে কোরআনের অ্যাপস থাকলে সেই মোবাইল পকেটে নিয়ে টয়লেটে যাওয়া যাবে কি না, সে সম্পর্কে জানতে চেয়ে বাসাবো থেকে টেলিফোন করেছেন আবদুল মতিন। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : আমরা জানি কোরআন শরিফ পড়ার জন্য বা স্পর্শ করার জন্য পবিত্র থাকতে হবে। এখন আমার মোবাইল অ্যাপসে আমি সম্পূর্ণ কোরআনের সফট কপি রেখেছি। যাত্রাপথে, কর্মস্থলে বা টয়লেটে যাওয়ার সময়ও মোবাইল আমার সঙ্গে থাকে। এ ক্ষেত্রে আমার মোবাইল ব্যবহার করার সময় অতিরিক্ত সতকর্তা অবলম্বন করার দরকার আছে কি না?

উত্তর : ভাই আপনি চমৎকার প্রশ্ন করেছেন। কোরআনে কারিম পড়ার জন্য পবিত্রতা অর্জনের প্রয়োজন নেই। যেমন অজু না থাকলেও কোরআন পড়া যাবে। কিন্তু কোরআন স্পর্শ করতে হলে অজু করে কোরআন শরীফ অর্থাৎ কোরআনের মূল টেক্সট ধরতে হবে। আর আপনি যে অ্যাপসের কথা বলেছেন, সেখানে মোবাইলের মধ্যে একটি প্রযুক্তি ব্যবহার করে কোরআনকে সংরক্ষণ করা হয়েছে। অর্থাৎ, একটা অ্যাপসের মাধ্যমে কাজটা করা হয়েছে। কোরআনের মূল টেক্সট আর এই অ্যাপসের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। দুটো জিনিস এক রকম নয়। এজন্য আপনি আলহামদুলিল্লাহ মোবাইলের অ্যাপস ব্যবহার করে কোরআন পড়তে পারবেন। আর যদিও মোবাইলের অ্যাপস বন্ধ করলে আর কোরআনের কোনো অস্তিত্ব দৃশ্যমান থাকে না, তবুও টয়লেটে যাওয়ার সময় মোবাইল পেকেটে থাকলে যথাসম্ভব চেষ্টা করবেন, মোবাইলটা বাইরে রেখে যাওয়ার জন্য। চেষ্টা থাকার পরও কোনো কারণে যদি পেকেটে মোবাইল নিয়ে কেউ টয়লেটে চলে যান, তাতেও ইনশা আল্লাহ কোনো সমস্যা হবে না।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement