Beta

ইউরোপিয়ান ফুটবলে নতুন ইতিহাস

১০ মে ২০১৯, ২০:০৪

স্পোর্টস ডেস্ক

ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলোকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ। আগামী ১ জুন রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের মৌসুমের ফাইনালে মুখোমুখি হবে লিভারপুল এবং টটেনহ্যাম হটস্পার। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং ইউরোপা লিগকে বিবেচনা করা হয় শীর্ষ দুই প্রতিযোগিতা হিসেবে। মর্যাদার দিক থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগের পরেই রয়েছে ইউরোপা লিগ। বৃহস্পতিবার রাতে ইউরোপা লিগের সেমিফাইনালে ভ্যালেন্সিয়াকে পরাজিত করে ফাইনালে উঠে যায় আর্সেনাল। অন্যদিকে, ফ্রাঙ্কফুর্ট এইনট্রাখটকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে যায় চেলসি। এরই সঙ্গে ইউরোপের শীর্ষ এই দুই লিগের ইতিহাস নতুন করে রচিত হয়।

প্রথমবারের মতো ইউরোপ সেরা এই দুই লিগের ফাইনালে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে চারটি ইংলিশ ক্লাব। ক্লাব পর্যায়ের এই দুই শীর্ষ লিগে একটি দেশের চারটি ক্লাব এর আগে কখনো ফাইনালে উঠেনি। প্রথম লেগে ৩-০ গোলে হারলেও মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগে অবিশ্বাস্যভাবে বার্সেলোনাকে ৪-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে যায় লিভারপুল। ঠিক পরের দিন রাতে নাটকীয় এক ম্যাচে আয়াক্সকে ৩-২ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল নিশ্চিত করে আরেক ইংলিশ ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার। তাই এবারের ইউরোপের ক্লাব পর্যায়ের দুই বড় প্রতিযোগিতায় হচ্ছে ‘অল ইংলিশ ফাইনাল।’  

বৃহস্পতিবার রাতে ইউরোপা লিগের সেমিফাইনালে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ইংলিশ ক্লাব আর্সেনাল ও স্প্যানিশ ক্লাব ভ্যালেন্সিয়া। প্রথম লেগে ঘরের মাঠ এমিরেটস স্টেডিয়ামে ৩-১ গোলে জিতে আগে থেকেই এগিয়ে ছিল আর্সেনাল। ঘরের মাঠে দ্বিতীয় লেগে ম্যাচের ১১ মিনিটেই কেভিন গ্যামেইরোর গোলে এগিয়ে যায় ভ্যালেন্সিয়া। তবে মিনিট ছয়েক পরেই পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াংয়ের গোলে সমতা ফেরায় গানাররা। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ভ্যালেন্সিয়ার হয়ে আবার গোল করেন গ্যামেইরো। তবে পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াংয়ের হ্যাটট্রিক এবং আলেক্সান্দ্রে লাকেজেত্তের গোলে ৪-২ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে আর্সেনাল। দুই লেগ ৭-৩ ব্যবধানে জয়ী হয়ে ফাইনালে উঠে যায় ইংলিশ ক্লাবটি।  

ফাইনালে উঠার আরেক ম্যাচে ঘরের মাঠ স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে এইনট্রাখটের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে চেলসি। ম্যাচের ২৮ মিনিটে রুবিন চিকের গোলে এগিয়ে যায় চেলসি। তবে ৪৯ মিনিটে লুকা জোভিচের গোলে সমতা ফেরায় এইনট্রাখট। দুই লেগ মিলিয়ে ২-২ গোলে ড্র হলে খেলা পেনাল্টিতে গড়ায়। পেনাল্টিতে ৪-৩ গোলে জয়ী হয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে চেলসি। রচিত হয় ইউরোপের শীর্ষ দুই ক্লাব প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো ‘অল ইংলিশ ফাইনালে’র ইতিহাস।

আগামী ৩০ মে রাতে ইউরোপা লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হবে আর্সেনাল ও চেলসি।      

Advertisement