Beta

মাঠ ছেড়ে ঘোড়া কেন পানশালায়?

১০ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৪০

অনলাইন ডেস্ক
সম্প্রতি প্যারিসের উত্তরাঞ্চলের শহর চ্যান্টিলির একটি পানশালায় হঠাৎ এক ক্ষ্যাপাটে ঘোড়া ঢুকে সবাইকে ঘাবড়ে দেয়। ছবি : সংগৃহীত

‘ওরে বুবু সরে দাঁড়া, আসছে আমার পাগলা ঘোড়া; পাগলা ঘোড়া ক্ষেপেছে, চাবুক ছুড়ে মেরেছে’—ছেলেবেলায় পড়া এসব পঙ্ক্তি কারো ভোলার কথা নয়। পাগলা ঘোড়া যে কত কিসিমের হয়, তা না দেখেলে বোঝা মুশকিল! সম্প্রতি ক্ষ্যাপাটে এক ঘোড়া ঘোড়দৌড়ের ময়দান ফেলে দৌড়াতে দৌড়াতে সোজা এসে ঢুকল পানশালায়! আর পানশালার সব খদ্দের, কর্মচারী ভয়ে ‘চাচা আপন প্রাণ বাঁচা’ বলে দে ছুট!

ঘোড়াটি কি মদ খেতে ওই পানশালায় এসেছিল, নাকি ওটাই তার দৌড়ানোর ময়দান? এসব প্রশ্নের সুরাহা হয় ঘটনার পর ঘোড়ার মালিকের বক্তব্য থেকে। জানা যায়, মূল ঘটনা তার চেয়েও নাটকীয়।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদপত্র দৈনিক মিরর থেকে জানা যায়, সম্প্রতি অবাক করা এ ঘটনা ঘটেছে প্যারিসের উত্তরাঞ্চলের শহর চ্যান্টিলির এক পানশালায়। পানশালাটি আবার ঘোড়দৌড় ময়দানের কাছাকাছি।

পানশালার নিরাপত্তা ক্যামেরায় ধারণ করা ভিডিওতে দেখা যায়, শান্ত নিরিবিলি পরিবেশে বসে আপন মনে মদ পান করছেন খদ্দেররা। কেউ কেউ মেতে আছেন নিজেদের মধ্যে গল্পগুজবে। এরই মাঝে হঠাৎ ঝড়ো গতিতে লাফাতে লাফাতে পানশালায় এসে ঢুকল এক ঘোড়া। আর সঙ্গে সঙ্গে প্রাণভয়ে খদ্দের থেকে শুরু করে পানশালার কর্মচারী, কর্মকর্তা সবাই যে যেদিকে পারেন, পড়িমড়ি ছুটে পালাতে লাগলেন। এর ভেতর ঘোড়াটি পানশালার এ মাথা থেকে ও মাথা ঝড়ের বেগেই একবার চক্কর মেরে নেয়।

ঘটনাটি প্রথম দেখে বা শুনে হাসির মনে হলেও বাস্তবে ছিল ভয়ানক। এমন ক্ষ্যাপাটে ঘোড়ার পায়ে পিষ্ট হয়ে কিংবা কামড় খেয়ে বা অন্য কোনোভাবে যে কেউ গুরুতর আহত হতে পারতেন, প্রাণহানি ঘটাও অস্বাভাবিক ছিল না। ভাগ্য ভালো তেমন কিছু ঘটেনি। কেবল কয়েকটি চেয়ার আর একটি টেবিল ভেঙে ফেলে ঘোড়াটি।

পানশালার মালিক স্তেফান জেসমিন বলেন, ‘ঘোড়াটি দরজা ঠেলে পানশালায় ঢুকে সোজা দৌড়াতে শুরু করে জুয়া খেলার মঞ্চের দিকে। তারপর সেখান থেকে আবার উল্টো ঘুরে দৌড়াতে শুরু করে। একটি টেবিল আর কয়েকটি চেয়ার ভেঙে ফেলে সে। এমন উদ্ভট কোনো কিছু আমরা জীবনেও দেখিনি।’

‘ভাগ্য ভালো যে, সে সময় পানশালাটিতে খুব বেশি লোকের ভিড় ছিল না। তার আগে আগেই একদল লোক সকাল ১০টার ট্রেন ধরবে বলে মদ খাওয়া শেষে বেরিয়ে যান,’ জানান জেসমিন।

ভিডিওতে দেখা যায়, জিন পরানো, গদি বসানো ঘোড়াটি দৌড়ের জন্যই সেটিকে প্রস্তুত করা হয়েছে। কিন্তু আদতে সেখান থেকে সে ভেগে এসেছে।

উদ্ভট ওই ঘটনার পরে ঘোড়াটির প্রশিক্ষক জে মারি বেগুইন জানান, এক মাইল দূরের ঘোড়দৌড়ের ময়দান চ্যান্টিলি রেসকোর্সের ঘোড়াশালায় আরোহীকে ফেলে দিয়ে পালিয়ে এসেছে বাজির এ ঘোড়া।   

ওই চ্যান্টিলি রেসকোর্স ময়দানেই গত দুই বছর ধরে অক্টোবর মাসে ‘প্রিক দ্যু লা’র্ক দ্যু ত্রিয়ুম্ফ’ নামক দুনিয়ার সবচেয়ে সম্মানসূচক ঘোড়দৌড় অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।  

ফ্রান্সের সংবাদপত্র ‘ওয়েস্ট ফ্রান্স’কে বেগুইন জানান, ‘ঘোড়াশালা ও ময়দানের মাঝামাঝি জায়গায় আরোহীকে ফেলে দিয়ে সড়ক ধরে পালিয়ে এসেছে ঘোড়াটি। পরে ঘুরতে ঘুরতে এই পানশালায় এসে ঢুকেছে। পুরো ব্যাপারটিই ব্যতিক্রমী।’

যাই হোক, শেষমেশ কারো হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেনি, তা নিয়েই সবাই খুশি। ঘোড়ার নাম গোপন করে বেগুইন জানান, ঘোড়াটি ক্ষ্যাপাটে অবস্থায় নেই। তার অন্য কোনো সমস্যাও হয়নি। তবে এটির পালাবার প্রতি একটু ঝোঁক আছে বলে জানান তিনি।

এই কাকতাল দেখে বেগুইন সবচেয়ে অবাক হয়েছেন যে, ঘোড়দৌড় নিয়ে জুয়া খেলা হয় এমন একটি পানশালাতেই কী করে বাজির এ ঘোড়া এসে ঢুকল!

জানা যায়, ওই পানশালাটি একটি ‘পিএমইউ বার’। ফ্রান্সে রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত এসব পানশালায় টিভিতে ঘোড়দৌড় দেখানো ও তা নিয়ে জুয়া খেলার প্রচলন আছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement