Beta

ষড়যন্ত্রের শিকার নওয়াজ, ভিডিও ফাঁস করলেন কন্যা মরিয়ম

০৭ জুলাই ২০১৯, ২২:৫৫

অনলাইন ডেস্ক

দুর্নীতির মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে দোষী সাব্যস্ত করতে অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্টের বিচারপতিকে ‘ব্ল্যাকমেইল ও বাধ্য’ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তাঁর কন্যা মরিয়ম নওয়াজ।

সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুর খবরে বলা হয়, শনিবার লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলনে এর প্রমাণস্বরূপ একটি ভিডিও ক্লিপও প্রকাশ করেছেন মরিয়ম। তবে ফাঁস হওয়া সেই ভিডিওকে ‘সাজানো’ উল্লেখ করে এর ফরেনসিক অডিট দাবি করেছে ইমরান খানের সরকার। একে বিচার বিভাগের ওপর আক্রমণ আখ্যা দিয়েছে তারা।

গত বছরের ডিসেম্বরে দুর্নীতি মামলায় পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। কোট লাখপাত জেলে আছেন তিনি। শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেওয়া বক্তৃতায় মরিয়ম অভিযোগ করেন, তাঁর বাবার বিরুদ্ধে বিচার প্রক্রিয়া একেবারেই যথাযথ ছিল না।

সে সময় ইসলামাবাদের অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্টের বিচারপতি আরশাদ মালিক ও পিএমএল-এনের সমর্থক নাসির বাটের কথোপকথনের একটি ভিডিও হাজির করেন মরিয়ম।

ওই কথোপকথনে বিচারপতি আরশাদ স্বীকার করেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজের বিরুদ্ধে রায় দেওয়ার জন্য গোপন শক্তি তাকে ‘ব্ল্যাকমেইল ও জোর-জবরদস্তি’ করেছে।

মরিয়মের দাবি, বিচারপতি আরশাদ মালিক নিরপেক্ষভাবে ঘোষণা করেছিলেন যে নওয়াজের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং কিংবা অন্য কোনো আর্থিক দুর্নীতির প্রমাণ নেই। তারপরও নওয়াজকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি।

নওয়াজ কন্যার অভিযোগ, তার বাবার বিরুদ্ধে সাজা ঘোষণার জন্য ওই বিচারপতিকে ব্ল্যাকমেইল করা হয়েছিল। কিছু মানুষ তাকে হুমকি দিয়েছিল সাজা ঘোষণা না করলে তার (বিচারপতির) ব্যক্তিগত একটি ভিডিও প্রকাশ করে দেওয়া হবে।

Advertisement