Beta

বিজ্ঞানভিত্তিক গবেষণাপত্রের দাবি

ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ হলে প্রাণ যেতে পারে সাড়ে ১২ কোটি মানুষের

০৩ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:৪৬

অনলাইন ডেস্ক

এ মুহূর্তে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে পারমাণবিক যুদ্ধ হলে প্রাণ হারাবে সাড়ে ১২ কোটি মানুষ। শুধু তাই নয়, এমন যুদ্ধ বয়ে আনবে ‘পারমাণবিক শীত’, যা বৈশ্বিক জলবায়ুকে ভয়াবহ রকম বদলে দেবে। একটি বিজ্ঞানভিত্তিক গবেষণাপত্রের প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি করা হয়েছে।

সম্প্রতি সায়েন্স অ্যাডভান্সেস জার্নালে একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের রুটগার্স বিশ্ববিদ্যালয়-নিউ বার্নসউইকের সহলেখক অ্যালান রোবক বলেছেন, ‘যেসব স্থানে বোমা ফেলা হবে, শুধু সেসব জায়গাই নয়, এ ধরনের যুদ্ধে গোটা বিশ্বের জন্যই ভয়ের কারণ রয়েছে।’ সায়েন্স অ্যাডভান্সেস জার্নালের ওই প্রতিবেদনে ২০২৫ সালে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সম্ভাব্য যুদ্ধের প্রেক্ষাপট নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে।

ওই গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, হিমালয়ের উপত্যকা অঞ্চল কাশ্মীর নিয়ে একাধিকবার দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধ বেঁধেছে। মিলিতভাবে এই দুই দেশ ২০২৫ সালের মধ্যে ৪০০ থেকে ৫০০টি পরমাণু অস্ত্র তৈরি মজুদ করে ফেলবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এ ছাড়া গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুই দেশের মধ্যে পারমাণবিক যুদ্ধ হলে বৈশ্বিকভাবে সবুজায়ন কমে যাবে ১৫ থেকে ৩০ শতাংশ। এ ছাড়া মহাসাগরের উৎ‌পাদন সক্ষমতা ৫ থেকে ১৫ শতাংশ কমে যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন গবেষকরা। আর যুদ্ধের এসব প্রভাব কাটিয়ে উঠতে ১০ বছর সময় লেগে যাবে বলে মত গবেষকদের।

রোবক বলেন, ‘নয়টি দেশের কাছে পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। কিন্তু ভারত ও পাকিস্তান খুব দ্রুত তাদের পরমাণু অস্ত্রসম্ভার বাড়াচ্ছে।’

রোবক মনে করেন, পারমাণবিক অস্ত্রের ব্যবহার কমানোর একমাত্র উপায় হলো অস্ত্রগুলো ধ্বংস করে ফেলা।

Advertisement