Beta

রঙের মায়া, মায়ার রং

১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১১:৫১ | আপডেট: ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১১:৫৩

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ দ্য ঢাকার লা গ্যালারিতে শুরু হলো শিল্পী ইসকিন্দার মির্জার ‘রঙের মায়া’ শীর্ষক একক চিত্র প্রদর্শনী। গত ১৩ এপ্রিল শুক্রবার প্রধান অতিথি হিসেবে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন শিল্পী মুস্তফা মনোয়ার। বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সমরজিৎ রায়চৌধুরী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের প্রাচ্যকলা বিভাগের অধ্যাপক নাসরীন বেগম। এ ছাড়া অতিথি ছিলেন ইউএনডিপির মানবসম্পদ বিভাগের সহযোগী নিরুপমা নাহার। আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ দ্য ঢাকার পরিচালক ব্রুনো প্লাস অতিথিদের স্বাগত জানান এবং অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন। প্রদর্শনীতে শিল্পীর ৩৫টি চিত্র প্রদর্শিত হচ্ছে।

শিল্পী মুস্তফা মনোয়ার বলেন, ‘শিল্পী ইসকিন্দার মির্জা তাঁর শিল্পকলার মধ্য দিয়ে রঙের মোহ তৈরিতে নিবেদিত প্রাণ। তাঁর বিশ্বাস, যখন রং কাজ করে, শিল্প এক জাদুকরী সম্মোহন বিস্তার করে।’

শিল্পী সমরজিৎ রায়চৌধুরী বলেন, ‘ইসকিন্দারের গুরুত্বপূর্ণ চিত্রকর্মগুলো তুলে ধরে পুরান ঢাকার ঘোড়াদের, সেইসঙ্গে মহিষ, কামার, নারী, ফুল, পাতা, প্রকৃতি এবং বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী শিল্পকর্মও। বহুরূপী রঙের মায়া মিশিয়ে শিল্পী সৃষ্টি করতে চান এক ইন্দ্রজাল, যা সঞ্চারিত করে তাঁর অনুভব, অনুভবের আকাঙ্ক্ষা, সুদূর অতীত, হারিয়ে যাওয়া সংস্কৃতি অথবা তাঁর চারপাশের প্রকৃতির স্নিগ্ধতা।’

অধ্যাপক নাসরীন বেগম বলেন, ‘বাংলাদেশের জনমানুষ, তাদের জীবনযাত্রা, জীবনের পাশবিক ভার, কাজের পরিবেশ, জীবনে আপাত শান্তির নিস্তরঙ্গতা, এদের সবার মাঝেই আছে বহুমাত্রিক রং, যা যুগপৎ চিত্রবিচিত্র ও মায়াময়। শিল্পী ইসকিন্দার মির্জার প্রচেষ্টা শুধু সেই অন্ত্যমিলটুকু তুলে ধরা।’

শিল্পী ইসকিন্দার মির্জা তাঁর স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাচ্যকলা বিভাগ থেকে। তিনি এরই মধ্যে ৩০টির মতো দলগত প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছেন। ২০১৫ সালে শিল্পীর প্রথম একক প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয় জয়নুল গ্যালারিতে।

প্রদর্শনীটি চলবে ২৪ এপ্রিল পর্যন্ত। সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা এবং শুক্র ও শনিবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা এবং বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রদর্শনীটি খোলা থাকবে। রোববার সাপ্তাহিক বন্ধ। প্রদর্শনীটি সবার জন্য উন্মুক্ত।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement