Beta

‘বৃষ্টির কারণে মেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে’

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৪

অমর একুশে গ্রন্থমেলার শেষ  দিন আজ। বইমেলা ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে এনটিভি অনলাইনের সঙ্গে কথা বলেছেন পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্সের প্রতিষ্ঠাতা ও কর্ণধার কামরুল হাসান শায়ক। 

প্রশ্ন : এবারের বইমেলায় আপনার প্রকাশনা থেকে কতগুলো বই প্রকাশিত হয়েছে?

কামরুল হাসান শায়ক :  প্রায় ১২৫টির বেশি  বই এসেছে। আমরা বিষয়ভিত্তিক বই সবসময় করি। এবারও করেছি। এর মধ্যে শাহরিয়ারের কমিকসের বই বেসিক আলী-১১, বাবু-১২ বের হয়েছে। লাইলি কমিকস সিরিজ ইংরেজিতে প্রকাশিথ হয়েছে। শাহরিয়ারের গ্রাফিক্স  উপন্যাস  ‘হ্যাকারের কবলে বেসিক আলী’ খুব আলোচিত হয়েছে।

প্রশ্ন : কমিকসের বই ছাড়াও আর কী কী বই এসেছে?

কামরুল হাসান শায়ক : পাঠককে আমরা সবসময় সমৃদ্ধ বই দিতে চাই।  প্রবন্ধ, উপন্যাস, কবিতা, কিশোর ক্ল্যাসিক এবার অনেক প্রকাশ করা হয়েছে। মোজাফফর হোসেনের ‘পাঠে বিশ্লেষণে বিশ্বগল্প’  বইটি  ভালো হয়েছে।  বাংলা সাহিত্যের প্রথম সায়েন্স ফিকশন লিখেছেন বিজ্ঞানী জগদীশ চন্দ্র বসু। সেই বইটি আমরা প্রকাশ করেছি যদিও বাংলা সাহিত্যের প্রথম সায়েন্স ফিকশন নিয়ে নানা কথা আছে। ড.মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর গল্পগ্রন্থ বের করেছি আমরা। তিনি যে চমৎকার গল্পও লিখেছেন— এটা আমরা অনেকে জানি না।  ক্লাসিক ভূতের গল্প আমরা অনেক বের করেছি। এরমধ্যে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বইও আছে।

প্রশ্ন : এবার মেলা থেকে সাড়া পেলেন কেমন?

কামরুল হাসান শায়ক :  ১০ তারিখের পর থেকে ব্যাপক সাড়া ছিল। অনেক পাঠক  এসেছে মেলায় এবার। মেলার পরিবেশও দারুণ ছিল। তবে বৃষ্টির কারণে মেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া চকবাজারে আগুন লাগার কারণে অনেকের মানসিক অবস্থা ভালো ছিল না। মেলায় আসেনি তারা। এসব না হলে মেলার শেষটা আরো ভালো হতো।

Advertisement