Beta

ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল আনবে হার্লে-ডেভিডসন

১৫ জুন ২০১৬, ১৫:৫৪ | আপডেট: ১৫ জুন ২০১৬, ১৬:০২

ফিচার ডেস্ক

আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল নিয়ে আসার পরিকল্পনা করছে মার্কিন প্রতিষ্ঠান হার্লে-ডেভিডসন। এ খবর জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট এনগেজেট। 

২০১৪ সাল থেকে ‘লাইভ ওয়্যার’ নামে প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে হার্লে-ডেভিডসন। সেই প্রকল্পের আওতায় কিছু প্রোটোটাইপ সংস্করণ তৈরি করা হয়েছিল ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলের। যদিও সেগুলো বাজারে ছাড়া হয়নি। 

এবার সেই প্রকল্পের আওতায় ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল নিয়ে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে এখনো বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি এসব বাইকের ব্যাপারে। 

লাইভ ওয়্যার প্রকল্পের আওতায় যেসব প্রোটোটাইপ ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল তৈরি করা হয়েছিল, সেগুলো মাত্র চার সেকেন্ডে শূন্য থেকে ৬০ কিলোমিটার গতি তুলতে সক্ষম। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১০০ মাইল বেগে ছুটতে পারে এসব মোটরসাইকেল। এসব মোটরসাইকেল পুরো চার্জ হতে সময় লাগে সাড়ে তিন ঘণ্টা। 
হার্লে-ডেভিডসনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট শন কামিংস বলেন, ‘২০২১ সালের মধ্যে হার্লে-ডেভিডসনের ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল আমরা রাস্তায় নামাতে চাই।’ 

একবার সম্পূর্ণ চার্জ দিলে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারবে এসব ইলেকট্রিক বাইক। ইঞ্জিনের ভারী যান্ত্রিক শব্দের জন্য হার্লে-ডেভিডসন মোটরসাইকেলের আলাদা সুনাম রয়েছে। তবে ইলেকট্রিক বাহনের ক্ষেত্রে সব সময়ই ইঞ্জিন কম শব্দ উৎপন্ন করে। এ ক্ষেত্রে ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলে হার্লে-ডেভিডসনের আওয়াজ থাকবে কি না, সেটা নিয়েও মোটরসাইকেলপ্রেমীদের কৌতূহল রয়েছে।    

১৯০৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে প্রতিষ্ঠা করা হয় মোটরসাইকেল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হার্লে-ডেভিডসন। বর্তমানে বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম মোটরসাইকেল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হার্লে-ডেভিডসন। নিউইয়র্ক, পেনসিলভেনিয়া, মিলওয়াকি (উইসকনসিন), কানাস সিটি, মিসৌরি, ব্রাজিল ও ভারতে হার্লে-ডেভিডসনের কারখানা রয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement