Beta

ভারতের হরিয়ানায় চালু হচ্ছে বাইক ট্যাক্সি

১৯ নভেম্বর ২০১৫, ২০:৩৩ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৫, ২৩:০৭

ফিচার ডেস্ক
ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে চালু হচ্ছে বাইক ট্যাক্সি সেবা। ছবি : এনডিটিভি

জ্যামের মধ্যে গাড়ি দিয়ে বেশিদূর এগোনো যায় না। তাই অনেকেই সাইকেল বা মোটরসাইকেল ব্যবহার করেন। দ্রুত চলাচলের জন্য মোটরসাইকেলের চাহিদা রয়েছে। কিন্তু বাণিজ্যিকভাবে এর চল খুব একটা দেখা যায় না। এরই ব্যবহার শুরু হতে যাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। বাইক-ট্যাক্সি (বাক্সি) নামের এসব সংস্থা বাইক পরিবহনের সেবা চালু করছে। 

ভারতের হরিয়ানা রাজ্য সরকার এবার অনুমতি দিয়েছে রাস্তায় বাইক-ট্যাক্সি নামানোর। এর আগে প্রথম ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ গোয়াতে বাইক-ট্যাক্সি চালুর অনুমতি দিয়েছিল প্রাদেশিক সরকার। ট্যাক্সির মতোই যাত্রীরা বাইক ভাড়া করে শহরের বিভিন্ন জায়গায় যেতে পারবেন। প্রথমে এই বাইক-ট্যাক্সি চালু হবে গুরগাঁওয়ে। এ খবর জানিয়েছে এনডিটিভি। 

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাইক ট্যাক্সির এই সেবা চালু আছে। সুইডেন, চীন, ক্যামেরুন, কম্বোডিয়া, ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ও ব্রাজিলে এই সেবা বেশ জনপ্রিয়। 

ভারতের গুরগাঁওয়ে বাইক ট্যাক্সি সেবা চালু করছে ‘বাক্সি’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এরা শহরের বিভিন্ন জায়গায় নির্দিষ্ট ভাড়ার বিনিময়ে যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছে দেবে। 

বাক্সির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশুতোষ জোহরি বলেন, ‘আমাদের পাইলটরা (বাইকচালক) প্রশিক্ষিত। শুধু মোটরসাইকেল চালনা নয়, তারা সড়কে চলাচলে নিরাপত্তা এবং কীভাবে যাত্রীদের সাথে আচরণ করতে হবে সে ব্যাপারেও প্রশিক্ষণ পেয়েছে। তাঁরা হেলমেট ও ইউনিফর্ম পরে যাত্রী বহনের কাজটি করবেন। যাত্রীদেরও নিরাপত্তার জন্য বাধ্যতামূলকভাবে হেলমেট পরতে হবে।’  

প্রাথমিকভাবে ১০০ বাইক নিয়ে এই মাসের শেষের দিকে যাত্রা শুরু করবে বাক্সি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement