Beta

ভৈরব চেম্বারের নির্বাচনে ৩০ জনের মনোনয়নপত্র গ্রহণ

১৯ মে ২০১৯, ২৩:১৫

কিশোরগঞ্জের ভৈরব চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে মনোনয়নপত্র গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। ছবি : এনটিভি

কিশোরগঞ্জের ভৈরব চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে মনোনয়নপত্র গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। রোববার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত শহরের জামে মসজিদ রোডের চেম্বার কার্যালয়ে এই মনোনয়নপত্র গ্রহণ করা হয়।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক জিতেন্দ্র চন্দ্র দাশ, সহকারী নির্বাচন কমিশনার মো. আলকাছ মিয়া ও সিদ্দিকুর রহমান ভূঁইয়া প্রার্থীদের হাতে মনোনয়নপত্র তুলে দেন।

ভৈরব চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ সূত্রে জানা যায়, মনোনয়নপত্র গ্রহণের শেষ দিনে সভাপতি পদে বর্তমান কমিটির সহসভাপতি রিয়াজ আহমেদ মারুকী শাহীন, সভাপতি আলহাজ আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং সাবেক সভাপতি আলহাজ মো. হুমায়ূন কবীর মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন।

সিনিয়র সহসভাপতি পদে মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন বর্তমান কমিটির সিনিয়র সহসভাপতি হাজি মো. মোশাররফ হোসেন ও নতুন মুখ আতাউর রহমান কামাল।

সহসভাপতি একটি পদের বিপরীতে মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন চারজন। এঁরা হলেন মোস্তাফিজুর রহমান, মনির হোসেন, আবু কাউছার খন্দকার ও আলহাজ মুহাম্মদ জাহিদুল হক জাবেদ।

১৪ জন পরিচালক (সাধারণ) পদের বিপরীতে মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন ১৭ জন। এঁরা হলেন হাজি মো. এমরান মোল্লা তুহিন, রাকিব হাসান রকি, মো. সোহেল মিয়া, শরীফ নোয়াজ ভূঁইয়া, মো. মিজানুর রহমান পাটোয়ারী, তারেক আহমেদ ভূঁইয়া, হাজি মো. আলাল উদ্দিন, মো. দেলোয়ার হোসেন, হাজি মো. সাজ্জাদ হোসেন মামুন, মো. নিজাম উদ্দিন খন্দকার, সৈকত আহমেদ জেমস, মো. হোসেন আলী, আনোয়ার হোসেন ইমরান, মোবারক হোসেন, মইনুল ইসলাম, কাজী মাসউদ উর রহমান ও তানভীর আহমেদ। এই ১৭ জনের মধ্যে ১০ জন নতুন। বর্তমান পরিচালকদের মধ্যে সাতজন মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন।

অপরদিকে সহযোগী পরিচালক চারটি পদের বিপরীতে বর্তমান কমিটির চারজনই মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন। এঁরা হলেন মো. সুজন মিয়া, নিজাম মাহমুদ জুয়েল, মো. আব্দুর রশিদ ও মো. আক্তারুজ্জামান।

সূত্র জানায়, আগামী ২১ মে মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র দাখিল করা হবে। বাছাই হবে ২৩ মে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত। মনোনয়নপত্র বাতিল সম্পর্কে আপিল বোর্ডের কাছে আপিল দাখিলের তারিখ ও নিষ্পত্তির তারিখ ২৮ মে মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত। বৈধ মনোনীত প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ ২৯ মে বুধবার বেলা ১১টায়। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের তারিখ ৩১ মে শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত।

নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২২ জুন শনিবার। চলবে একটানা সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এক হাজার ২৮৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে দুই বছরের জন্য তাদের ব্যবসায়ী নেতৃত্ব নির্বাচিত করবেন।

এই প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক জিতেন্দ্র চন্দ্র দাশ জানান, একটি উৎসবমুখর সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সব রকম প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। সুপ্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী নদীবন্দর এবং বাণিজ্যকেন্দ্র ভৈরবের ব্যবসায়ীরা যাতে তাদের ভোটাধিকারের মাধ্যমে সঠিক নেতৃত্ব বেছে নিতে পারেন, সেজন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে কমিশনের পক্ষ থেকে।

Advertisement