Beta

পূর্বপ্রস্তুতি না নেওয়ায় এবার ডেঙ্গু বেশি : পরিবেশমন্ত্রী

১১ আগস্ট ২০১৯, ১৭:৩৫

বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন আজ রোববার দুপুরে মৌলভীবাজার পৌরসভার হলরুমে মশকনিধন ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে দিক-নির্দেশনামূলক মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন। ছবি : এনটিভি

ডেঙ্গু নিয়ে পূর্বপ্রস্তুতি ও পূর্বপরিকল্পনা না নেওয়ায় এবার ডেঙ্গু বেশি আকারে দেখা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। তিনি দাবি করেন, শুধু বাংলাদেশ নয়, প্রায় দেশেই এবার ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশে ডেঙ্গু মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে চলে আসছে।

আজ রোববার দুপুরে মৌলভীবাজার পৌরসভার হলরুমে মশকনিধন ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে দিক-নির্দেশনামূলক এক মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন। ডেঙ্গু থেকে মুক্তি পেতে তিনি নিজ বাড়ি-ঘর পরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি এ ঈদে কোরবানির পশুর বর্জ্য যেখানে সেখানে না ফেলতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

পরিবেশমন্ত্রী শাহাব উদ্দিন বলেন, আজকে আমরা পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গে দেখেছি, তাদের এতো (ডেঙ্গু) আক্রান্ত হয় নাই। ক্যালকাটায় এতো আক্রান্ত হয় নাই। কেন? তারা সচেতনতামূলক ব্যবস্থা মার্চ থেকে শুরু করে দিয়েছে। যে কারণে সেখানে এতো আক্রান্ত হয় নাই, এতো বেশি লোকও মারা যায়নি। যে কারণে আমাদের দেশে ডেঙ্গু বেশি প্রভাব ফেলছে, আমরা পূর্বপ্রস্তুতি, পূর্বপরিকল্পনা, আমরা সেগুলো গ্রহণ করি নাই সে কারণে ডেঙ্গু এতো বেশি আকার ধারণ করেছে। সারা ওয়ার্ল্ডে হচ্ছে। ইউরোপ, আমেরিকা, এশিয়া এমন কোনো দেশ বাকি নাই। প্রায় দেশে ডেঙ্গু রোগ দেখা দিয়েছে।

শাহাব উদ্দিন বলেন, বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে ৫০ থেকে ৬০ জন মারা গেছেন, সেটা কিন্তু কম নয়। আগাম প্রস্তুতি নিলে এমন হতো না। মৌলভীবাজারের অবস্থা তুলনামূলক ভালো আছে। সারা দেশেও ডেঙ্গু মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে চলে আসছে।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, শুধু পৌরসভায় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু ইউনিয়নে নেওয়া হচ্ছে না। ওই এলাকার কী হবে? তিনি আজকের মধ্যেই ইউনিয়ন পর্যায়ে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন।

পরিবেশ বিপর্যয় প্রসঙ্গে শাহাব উদ্দিন বলেন, টিলা কেটে ধ্বংস করা হচ্ছে। টিলা কাটতে গিয়ে চাপা পড়ে মানুষও মারা যাচ্ছে। তারপরও টিলা কাটা হচ্ছে। পলিথিন নিয়ে আমরা বৈঠক করেছি। পলিথিন আমাদের পরিবেশে মারাত্মক প্রভাব ফেলছে। পলিথিন মাটি ও বায়ুকে নষ্ট করে দিচ্ছে।

এ সময় মন্ত্রী শপিংয়ের জন্য পলিথিন ব্যবহার না করতে নির্দেশ দেন এবং এর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনকে নির্দেশ দেন।

পরে পরিবেশমন্ত্রী মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীদের দেখতে যান। এ সময় মৌলভীবাজার-৩ আসনের সাংসদ নেছার আহমদ, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ সৈয়দা জহুরা আলাউদ্দিন, জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ, পৌরসভার মেয়র মো. ফজলুর রহমান, সিভিল সার্জন মো. শাহজাহান কবিরসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement