Beta

নারায়ণগঞ্জ গ্রিনসিটি হবে : গণপূর্তমন্ত্রী

০৩ মার্চ ২০১৫, ২১:১৪ | আপডেট: ০৩ মার্চ ২০১৫, ২১:৪৯

নাফিজ আশরাফ, নারায়ণগঞ্জ
নারায়ণগঞ্জের মিশনপাড়ায় আজ মঙ্গলবার রাজউকের জমি পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। ছবি : এনটিভি

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনকে দূষণমুক্ত গ্রিনসিটি করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেছেন, অন্যান্য স্থানে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) জায়গায় নির্মিত মার্কেট সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করা হলেও নারায়ণগঞ্জে তা হয়নি। বিরোধে না জড়িয়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টির নিষ্পত্তি করা হবে।

আজ মঙ্গলবার সকালে নারায়ণগঞ্জের মিশনপাড়ায় রাজউকের জমি পরিদর্শনে এসে এ কথা বলেন মন্ত্রী মোশাররফ হোসেন। এ সময় নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান ও রাজউকের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন। তবে সিটি করপোরেশনের কোনো প্রতিনিধি সেখানে উপস্থিত ছিলেন না।

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকায় যেসব মার্কেট আছে তা আমরা হস্তান্তর করেছি। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে তা করা হয়নি। সিটি করপোরেশনের সঙ্গে আলোচনা করে তা আমরা সমন্বয় করব। আমরা এ নিয়ে কারো সঙ্গে বিরোধে জড়াতে চাই না। তাদেরও কোনো কথা থাকতে পারে, আমরা সেটা সমঝোতার মাধ্যমে সমাধান করতে চাই।’

 
‘ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা ও রাজশাহীর মতো শহরগুলো নষ্ট হয়ে গেছে। কিন্তু নারায়ণগঞ্জ শহরটি একটি আধুনিক ও পরিকল্পিত গ্রিন সিটি ও দূষণমুক্ত শহর হতে পারে। এই নগরীতে ৩৮ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছিল। তদারকির অভাবে তার মধ্যে কিছু জমি বেহাত হয়েছে। এসব জমি উদ্ধারের জন্য সিটি করপোরেশন ও জনপ্রতিনিধিদের সাথে নিয়ে রাজউক কাজ করবে।’ বলছিলেন গণপূর্তমন্ত্রী।

গণপূর্তমন্ত্রী আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষের সুবিধার্থে অচিরেই এখানে রাজউকের আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপন করা হবে। সেখানে উপযুক্ত জনবল কাঠামো থাকবে। কোনো প্ল্যান পাস করাতে নারায়ণগঞ্জবাসীকে ভবিষ্যতে ঢাকায় যেতে হবে না।

Advertisement