Beta

টাইটানিকের খাবার খাওয়ার সুযোগ!

২৮ মার্চ ২০১৮, ০৯:৩৯

টাইটানিকের সলিল সমাধির ১০৬ বছর হতে চলল। যুক্তরাজ্যের সাউদাম্পটন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে যাত্রা করা টাইটানিক ১৯১২ সালের ১৫ এপ্রিল বিশাল বরফখণ্ডে ধাক্কা লেগে ডুবে যায় উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরে। এতে প্রাণহানি ঘটে এক হাজার ৫০০ জনের। আর এই কাহিনী অবলম্বনে জেমস ক্যামেরনের অস্কারজয়ী ছবি ‘টাইটানিক’ সবার কাছে অমর করে দেয় ঐতিহাসিক এই দুর্ঘটনাকে। আর এই দুর্ঘটনার ১০৬ বছর উপলক্ষে চলতি বছরের এপ্রিলে হংকংয়ের রেস্টুরেন্ট ‘পেত্রাস অ্যাট শী আইল্যান্ড শাংরি-লা’ আয়োজন করছে ব্যতিক্রমী এক রাতের খাবারের। 

জুম টিভির খবরে প্রকাশ, ১৪ এপ্রিল টাইটানিকের প্রথম শ্রেণির যাত্রীদের শেষ রাতের খাবারের টেবিলে পরিবেশন করা খাবারগুলোর অনুরূপ খাবার পরিবেশন করা হবে হংকংয়ের পেত্রাস অ্যাট শী আইল্যান্ড শাংরি-লা রেস্টুরেন্টে। ১৪ এপ্রিল শেষবারের মতো রাতের খাবার খান টাইটানিকের যাত্রীরা। সেদিন তাঁদের টেবিলে ছিল- ‘ফিলেট মিগনন লিলি’, ‘রোস্ট গুইনিয়া ফাওল’, ‘ল্যাম্ব উইথ মিন্ট সস’, ‘কোল্ড আসপ্যারাগাস উইথ স্যাফ্রন ভিনেগার’ এবং ‘ওয়াল্ড্রফ পুডিং’। সব খাবারই ১৪ এপ্রিল রাতের খাবারের তালিকায় রাখছে ‘পেত্রাস অ্যাট শী আইল্যান্ড শাংরি-লা’ রেস্টুরেন্টটি।  

টাইটানিকের অনুকরণে বানানো এই খাবার খেতে আপনাকে খরচ করতে হবে দুই হাজার ৩৮৮ হংকং ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২৫ হাজার টাকা। এ ছাড়া জুটি হিসেবেও খাবারগুলো খাওয়ার সুযোগ রয়েছে। এজন্য আপনাকে গুনতে হবে দুই হাজার ৮৮৮ হংকং ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২৭ হাজার টাকা। আর এই সব রান্নার রাঁধুনি হিসেবে থাকছেন রেস্টুরেন্টটির প্রধান শেফ রিকার্ডো চ্যানেটন। 

তবে অবিকল টাইটানিক জাহাজের ডাইনিংয়ে বসে খাওয়ার অভিজ্ঞতা পেতে হলে আপনাকে যেতে হবে আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্টে। দুই বছরের প্রচেষ্টায় ঐতিহাসিক হারল্যান্ড ও ওলফ বিল্ডিংটি সংস্কার করে ‘টাইটানিক হোটেল বেলফাস্ট’কে সাজানো হয়েছে অবিকল টাইটানিক জাহাজের ডাইনিংয়ের মতো করে। তাই নিজেকে টাইটানিকের যাত্রী হিসেবে কল্পনা করা এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

Advertisement