Beta

সেই মার্টিনো এখন মেক্সিকোর কোচ

০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ১৩:৪৩ | আপডেট: ০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ১৩:৪৫

স্পোর্টস ডেস্ক

আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনার সাবেক কোচ জেরার্ডো মার্টিনো মেক্সিকো জাতীয় দলের নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। এরই মধ্যে মেক্সিকো ফুটবল ফেডারেশন তা ঘোষণা দিয়েছে। কলম্বিয়ান হুয়ান কার্লোস ওসোরিওকে নিয়ে মেক্সিকোর পরবর্তী কোচ হিসেবে গুজব শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে মার্টিনোই এই দায়িত্ব নিলেন।

‘এল ট্রাই’ মিশনে এসে মার্টিনো সরাসরিভাবে একটি কথাই স্পষ্টভাবে জানাতে চেয়েছেন, গত সাতটি বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার স্বপ্ন অধরাই থেকে গেছে মেক্সিকানদের। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ সামনে রেখে সেই অধরা স্বপ্ন পূরণই এখন তার সামনে একমাত্র চ্যালেঞ্জ। মার্টিনো বলেন, ‘বিশ্বকাপে পঞ্চম ম্যাচ খেলার স্বপ্ন নিয়ে আমি কাজ শুরু করব। কিন্তু তার আগে আমি সকলের মাঝে সুস্পষ্ট একটি ধারণা দিতে চাই। জাদুর স্পর্শে কেউ আমাদের বিশ্বকাপের ওই জায়গায় নিয়ে যাবে না, কষ্ট করেই তা অর্জন করতে হবে।’

যুক্তরাষ্ট্রে মেজর লিগ সকারে আটলান্টা ইউনাইটেডের হয়ে গত মাসে এমএলএস কাপ উপহার দেওয়ার পরপরই ৫৬ বছর বয়সী মার্টিনো লাইম লাইটে চলে আসেন। শিরোপা জয়ের পর তিনি এমএলএসের বর্ষসেরা কোচের পুরস্কার লাভ করেন।

অবশ্য মার্টিনোর সঙ্গে চুক্তির বিস্তারিত কিছু প্রকাশ করেনি মেক্সিকো ফুটবল ফেডারেশন। কিন্তু ফেডারেশন সভাপতি ইয়ন ডি লুইসা ইঙ্গিত দিয়েছেন কাতারে মেক্সিকোকে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আগামী চার বছরে তার সামনে একটাই লক্ষ্য থাকবে বলে সভাপতি মন্তব্য করেছেন।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে মেক্সিকোর শুরুটা ভালো হলেও শেষ পর্যন্ত আর টিকে থাকতে পারেনি। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে ১-০ গোলে পরাজিত করে টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল মেক্সিকানরা। কিন্তু শেষ ষোলোর লড়াইয়ে ব্রাজিলের কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হয়ে বিদায় নেয়। ১৯৯৪ সালের পর থেকে প্রতিটি বিশ্বকাপে এই একই পর্যায় থেকে তাদের বিদায় ঘটেছে।

বিশ্ব ফুটবলে অবশ্য মেক্সিকোর অতীত ইতিহাস বেশ সমৃদ্ধ। অলিম্পিক স্বর্ণ, কনফেডারেশন্স কাপের শিরোপাসহ ১০টি রিজিওনাল চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপা জিতেছে মেক্সিকো। কিন্তু ১৯৮৬ সালে সর্বশেষ কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা দলটি বিশ্বকাপে আর সে পর্যন্ত পৌঁছাতে পারেনি।

ফেডারেশন থেকে জানানো হয়েছে, মার্টিনোর নিয়োগের আগে ২৪ প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়েছে। খেলোয়াড়ি জীবনের প্রায় বেশিরভাগ সময় মার্টিনো তাঁর নিজ জন্মভূমি রোসারিওর নিওয়েলস ওল্ড বয়েজে কাটিয়েছেন। এখানে বার্সেলোনা সুপারস্টার লিওনেল মেসির সঙ্গেও তাঁর অনেক স্মৃতি রয়েছে। এই ক্লাবেই তিনি ফুটবলীয় মেন্টর-কোচ মার্সেলো বিয়েলসার সংস্পর্শে এসেছিলেন।

আগামী ২২ মার্চ ক্যালিফোর্নিয়ার সান দিয়েগোতে চিলির বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ দিয়ে মার্টিনোর মেক্সিকোর কোচ হিসেব অভিষেক হতে যাচ্ছে। চার দিন পর সান্টা ক্লারাতে মেক্সিকো মার্টিনোর পুরোনো দল প্যারাগুয়ের মোকাবিলা করবে। জুন-জুলাইয়ে গোল্ডকাপ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে প্রথম অফিশিয়াল ম্যাচে দায়িত্ব পালন করবেন মার্টিনো।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement