Beta

ইতিহাস গড়ল ম্যানচেস্টার সিটি

১৩ মে ২০১৯, ১১:০২

স্পোর্টস ডেস্ক

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা লড়াইটা এসে ঠেকেছিল শেষ ম্যাচে এসে। জিতলেই চ্যাম্পিয়ন হবে ম্যানচেস্টার সিটি। অন্যদিকে, এক পয়েন্টের ব্যবধানে দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিভারপুলও ছুটছিল। পা হড়কানোর কোনো সুযোগ নেই, এমন এক ম্যাচে উলভসকে ২-০ গোলে হারিয়ে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত চাপটা অব্যাহত রাখে লিভারপুল। তবে ব্রাইটনকে ৪-১ গোলে হারিয়ে শেষ হাসি হাসে ম্যানসিটিই। আর শিরোপা জয়ের সঙ্গে সঙ্গে নতুন ইতিহাস গড়ে পেপ গার্দিওলার দল। ২০০৭, ২০০৮ ও ২০০৯ সালে টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সিটিই একমাত্র ক্লাব, যারা ইউরোপের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এই লিগে পরপর দুবার চ্যাম্পিয়ন হতে পারল।

রোববার রাতে ম্যাচের শুরুতেই দুবার ধাক্কা খায় ম্যানসিটি। মাঠে নামার ১৭ মিনিটের মাথায় সংবাদ আসে, সাদিও মানের গোলে এগিয়ে গেছে লিভারপুল। মিনিট দশেক পর গ্লেন মারে দুর্দান্ত হেডে সিটির জালে বল জড়িয়ে সমর্থকদের মুখে আঁধার নামিয়ে আনে ব্রাইটন। তবে ঠিক এক মিনিট পরেই ঘুরে দাঁড়ায় ম্যানসিটি। তাদের ত্রাণকর্তা হয়ে আসেন আর্জেন্টাইন তারকা সার্জিও অ্যাগুয়েরো। ম্যাচের ২৮ মিনিটে ডেভিড সিলভার কর্নার থেকে বল পেয়ে ম্যাচে ১-১ সমতা ফেরান অ্যাগুয়েরো। 

১০ মিনিট পর ম্যাচে লিড নেয় ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচের ৩৮ মিনিটে মাহরেজের কর্নার থেকে ফরাসি স্ট্রাইকার আইমেরিক লাপোর্তে গোল করলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় সিটিজেনরা। এক গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় গার্দিওলার দল। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে ব্যবধান ৩-১ করে ম্যানসিটি। এবারও ডেভিড সিলভার বাড়িয়ে দেওয়া বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ব্রাইটনের এক ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে ডান পায়ের শটে দলের তৃতীয় গোল করেন মাহরেজ।

ম্যাচের ৭২ মিনিটে ম্যানসিটির শিরোপা নিশ্চিত করেন ইকে গুন্ডোগান। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে বাঁকানো ফ্রি-কিকে দুর্দান্ত এক গোল করেন ম্যানসিটির এই খেলোয়াড়। অন্যদিকে, ঘরের মাঠ অ্যানফিল্ডে উলভসকে ২-০ গোলে হারায় লিভারপুল। তবে আরো একবার শিরোপার একেবারে হাতছোঁয়া দূরত্বে গিয়ে হতাশ হতে হয় অলরেডদের। পুরো মৌসুমে দুর্দান্ত খেলা ইয়ুর্গেন ক্লপের দল মাত্র এক পয়েন্টে পেছনে পড়ে রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকে।

চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটির ২৬ পয়েন্ট পেছনে থেকে ৭২ পয়েন্ট নিয়ে এবারের লিগে তৃতীয় হয় চেলসি। চেলসির চেয়ে এক পয়েন্টের ব্যবধানে ৭১ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ হয় টটেনহাম হটস্পার। তবে মাত্র এক পয়েন্টে পেছনে পড়ে পঞ্চম হয় আর্সেনাল। তাই চ্যাম্পিয়নস লিগের আগামী মৌসুমে সরাসরি খেলতে পারছে না গানাররা। ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ অবস্থানে থেকে এবারের মৌসুম শেষ করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

Advertisement