Beta

বিয়ের চার দিনের মাথায় স্বামীর মৃত্যু, স্ত্রী হাসপাতালে

২৪ জুন ২০১৯, ২২:৪১

গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আহত নববধূ মনিরা খাতুন। ছবি : এনটিভি

বিয়ের চার দিনের মাথায় কাভার্ডভ্যানের চাপায় প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহী মোস্তফা আকন্দের (৩০)। গুরুতর আহত হয়েছেন নববধূ মনিরা খাতুন (২৫)।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার জয়দেবপুর-কালীগঞ্জ-ঘোড়াশাল সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোস্তফা আকন্দ গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার নলগাঁও খয়রাপাড়া এলাকার মৃত ফজলুল হক আকন্দের ছেলে।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মুহাম্মদ রাহাদুজ্জামান আকন্দ ও হতাহতের স্বজনরা জানান, কাপাসিয়া উপজেলার ডেফুলিয়া এলাকার মমিন উদ্দিন প্রধানের মেয়ে মনিরা খাতুনের সঙ্গে গত শুক্রবার ট্রাকচালক মোস্তফা আকন্দের বিয়ে হয়। সোমবার বিকেলে শ্বশুরবাড়ি থেকে নববধূকে নিয়ে মোটরসাইকেলে চড়ে বেড়াতে বের হন স্বামী মোস্তফা। সন্ধ্যায় তাঁরা শ্রীপুর উপজেলার চরমারতা বেপারিবাড়ি ব্রিজ সংলগ্ন মোড় দিয়ে আঞ্চলিক সড়ক থেকে জয়দেবপুর-কালীগঞ্জ-ঘোড়াশাল সড়কে উঠার সময় বেপরোয়া গতিতে আসা একটি কাভার্ডভ্যান তাঁদের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে কাভার্ডভ্যানের নিচে চাপা পড়ে মোস্তফা ঘটনাস্থলেই নিহত এবং তাঁর স্ত্রী মনিরা গুরুতর আহত হন।

এলাকাবাসী আহত মনিরাকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে। ঘটনার পর পরই কাভার্ডভ্যানটি পালিয়ে যায়।

আহত মনিরার মা নাসিমা আক্তার জানান, বাড়িতে দুপুরের খাওয়া শেষে বেড়ানোর জন্য মনিরাকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে বের হন মোস্তফা। মোস্তফা এলাকায় ট্রাক চালাতেন।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) প্রণয় ভূষণ দাস জানান, আহত মনিরা খাতুনের মাথায় আঘাত রয়েছে।

Advertisement