Beta

এবার কী ইতিহাসসেরা হতে যাচ্ছেন সাকিব?

২৬ জুন ২০১৯, ০০:০০

স্পোর্টস ডেস্ক

এবারের বিশ্বকাপটা যেন সাকিবময়। প্রতিটি ম্যাচেই দারুণ সাফল্য পাচ্ছেন তিনি। কখনো ব্যাট হাতে, আবার কখনো বল হাতে দলকে সাফল্য এনে দিচ্ছেন। শুধু তাই নয়, দারুণ কিছু অর্জন নিজের ঝুলিতে পুরেছেন তিনি। তাই এবারের বিশ্বকাপে সেরা খেলোয়াড় হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন তিনি।

আসরে এখন পর্যন্ত ছয় ইনিংসে দুটি সেঞ্চুরি এবং তিনটি হাফসেঞ্চুরি করেছেন সাকিব। ৪৭৬ রান করে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন তিনি। 

পরিসংখ্যানে যেটি এবারের আসরে ব্যাট হাতে সাকিবের সবচেয়ে খারাপ পারফরমেন্স, সেটিতেও করেছেন ৪১ রান।

আর গতকাল আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে পাঁচ উইকেট নিয়ে এই আসরে নিজের শিকার করা উইকেটের সংখ্যাও নিয়ে গেছেন ১০-এ।

চলমান বিশ্বকাপের ছয় হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলে ওয়ানডেতে পাঁচ হাজার রান আর ২৫০ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্বটাও সাকিবের।

ওয়ানডেতে সাকিব বাদে এই অর্জন জ্যাক ক্যালিস আর সনাথ জয়সুরিয়া ছাড়া শহীদ আফ্রিদিরও রয়েছে– যিনি ছিলেন সাকিবের আগে সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলে এই মাইলফলকে পৌঁছানোর রেকর্ডের মালিক। মাইলফলকটি ছোঁয়ার ক্ষেত্রে শহীদ আফ্রিদির চেয়ে ৯২ ম্যাচ কম খেলেন সাকিব।

গতকাল সোমবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৫১ রানের ইনিংস খেলে ইতিহাসের ১৬তম ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে এক হাজার রান করেন তিনি। বিশ্বকাপে এক হাজার রান করা প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার তিনিই।

আর সাউথাম্পটনে বল হাতে পাঁচ উইকেট নিয়ে বিশ্বকাপের এক ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি ও পাঁচ উইকেট নেওয়া দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে রেকর্ড গড়েন তিনি। এত দিন এই রেকর্ডটি ছিল ভারতীয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিংয়ের।

এই নৈপুণ্যের হিসেবে করলে এখন বলাই যায় বিশ্বকাপের ইতিহাসের সবচেয়ে সফল ক্রিকেটার সাকিব। কারণ বিশ্বকাপে এক হাজার রান করা এবং ৩২ উইকেট নেওয়া একমাত্র ক্রিকেটার তিনিই।

এর আগে ১১৬৫ রান ও ২৭টি উইকেট নিয়েছিলেন পাঁচটি বিশ্বকাপ খেলা শ্রীলঙ্কার সানাথ জয়সুরিয়া।

Advertisement