Beta

ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত রিয়াদ স্কুলে যেতে চায়

১৯ জুন ২০১৯, ১২:৩৫

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বেডে চিকিৎসাধীন স্কুলছাত্র রিয়াদ। ছবি : এনটিভি

মেধাবী ছাত্র হয়েও স্কুলে যেতে পারছে না মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন রিয়াদ। মরণব্যাধি ব্রেইন টিউমার আটকে দিয়েছে তার স্কুলে যাওয়া। প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় সরকারি বৃত্তি পেয়েছিল সে। কিন্তু এখন পড়ে রয়েছে হাসপাতালের বেডে। মেধাবী এই শিক্ষার্থীর চিকিৎসা ব্যয় মেটাতে নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন তাঁর বাবা কাঠমিস্ত্রি মোহাম্মদ সেকান্দর।

দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাণিজ্যিক প্রাণকেন্দ্র কেরানীহাটের ঐতিহ্যবাহী আশ-শেফা স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন রিয়াদ। স্কুল বন্ধের দিন ছাড়া প্রায় প্রতিদিনই ক্লাস শুরুর আগেই স্কুলে উপস্থিত থাকত সে। এখন সে আর স্কুলে যেতে পারছে না। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছে সে।

এমন পরিস্থিতিতে রিয়াদকে বাঁচাতে সরকার, দেশের দানশীল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে সাহায্য প্রার্থনা করছে অসহায় বাবা ও তাঁর পরিবার।

জানা গেছে, দেশের বাইরে নিয়ে চিকিৎসা করাতে পারলে আবারও স্কুলে ফিরতে পারবে রিয়াদ। এর মধ্যে ভারতে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করাতে প্রয়োজন হবে ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকা।

এরই মধ্যে রিয়াদের চিকিৎসা ব্যয় জোগাতে মানুষের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছে তার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আশ-শেফা স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

রিয়াদ সাতকানিয়া উপজেলার কেওচিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ জনার কেউচিয়ার বৈদ্যরবাড়ির মোহাম্মদ সেকান্দারের ছেলে। বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের ২৭ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন সে।

রিয়াদের মা আমেনা বেগম জানান, রিয়াদকে বাঁচাতে হলে বিদেশে নিয়ে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা করাতে হবে বলে চট্টগ্রামের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। আর এতে ব্যয় হতে পারে ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকা। তিনি অসহায় হয়ে বলেন, ‘সংসারে আমার নুন আনতে পান্তা ফুরায়। এমন অবস্থায় এত বিশাল অঙ্কের টাকা আমার পরিবারের পক্ষে জোগাড় করা কোনোমতেই সম্ভব নয়। দেশের সরকার, দানশীল মানুষ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি, আপনাদের হাত এগিয়ে দিয়ে আমার মেধাবী সন্তান রিয়াদকে বাঁচাতে সাহায্য করুন।’

রিয়াদকে অর্থ সহায়তা করার জন্য আগ্রহীরা রিয়াদের মা আমেনা বেগমের নামে এনসিসি ব্যাংকের কেরানীহাট শাখায় অ্যাকাউন্ট ০০ ৫৮০৩ ১০০৬ ১০৮৪ নম্বরে সাহায্য পাঠাতে পারেন।

এ ছাড়া ডাচ্-বাংলা, নগদ ও বিকাশের ০১৮৫৮৫৭১৬৯৫  (পার্সোনাল)- এই নম্বরটিতেও আগ্রহীরা সাহায্য পাঠাতে পারেন।

বিস্তারিত জানতে রিয়াদের বাবা মোহাম্মদ সেকান্দরের ০১৮২৪৭৭০৬৯২- এই নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে।

Advertisement