Beta

রাব্বি কি ‘ভালা না’?

০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:১১

নিজস্ব প্রতিবেদক
তরুণ কণ্ঠশিল্পী কামরুজ্জামান রাব্বি। ছবি : সংগৃহীত

হাতে দোতারা। পরনে পাঞ্জাবি। কাঁধছোঁয়া চুল। শ্রীমঙ্গলের চা-বাগানের সবুজ অরণ্যে গাছের গায়ে হেলান দিয়ে এক তরুণ নিবিষ্টচিত্তে গাইছেন—‘অতীতের কথাগুলো পুরোনো স্মৃতিগুলো মনে মনে রাইখো/ আমি তো ভালা না ভালা লইয়াই থাইকো।’ গানের কথা ও সুরের মতো তাঁর চোখমুখ থেকেও যেন ছিটকে পড়ছে বেদনারস। তাঁর গায়কি, অভিব্যক্তি আর কণ্ঠের সারল্য ছড়িয়ে পড়ল বাগানজুড়ে। ক্রমে বাংলার গানপিপাসুদের হৃদয়ে।

যাঁরা সংগীতাঙ্গনের খোঁজখবর একটু-আধটু রাখেন, তাঁরাও এতক্ষণে একবাক্যে বুঝে গেছেন এই তরুণ গায়ক কামরুজ্জামান রাব্বি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের এই চলতি হাওয়ায় তিনিও ‘ভাইরাল’ হয়েছিলেন, তাও অনেকদিন হয়ে গেল। গেল বছরের গোড়ার দিকে তাঁর গাওয়া ‘আমি তো ভালা না’ অন্তর্জালবাসীর হৃদয় ছোঁয়। এরপর গেয়েছেন আরো অনেক গান। হয়ে উঠছেন পরিচিত মুখ।

তবে শুরুর দিকে গানটি নিয়ে বেশ ঝামেলাও হয়েছিল। তিনি শুনেছিলেন গানটি মাহবুব শাহর, তাঁরই লেখা ও সুর করা। নিজ মুখে সেটা রাব্বিকে বলেছিলেন মাহবুব। সরল বিশ্বাসে মেনে নিয়েছিলেন। পরে ভুল ভাঙে। ওই চা-বাগানের নৈসর্গিক দৃশ্যের ভেতর নিজেকে সঁপে দিয়ে গাওয়া রাব্বির গানটির ভিডিও যখন অন্তর্জালে ছড়িয়ে পড়ে, তখন হঠাৎই জানা যায়, গানটির ‘আসল’ গীতিকার ও সুরকার টিটু পাগল। মাহবুব শাহর দাবি ‘মিথ্যে’। এ নিয়ে কপিরাইট অফিসে অভিযোগ। শুনানিতেও হাজির হতে হয় রাব্বিকে। পরে রায় আসে টিটু পাগলের নামে।

যা হোক, জনপ্রিয়তা পেলেও নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ওই গানটি ছাড়ার পর কম গালমন্দ শুনতে হয়নি গায়ক রাব্বিকে। যেহেতু গানের ক্রেডিট লাইনে আগে লেখা ছিল ‘গীতিকার মাহবুব শাহ’র নাম। পরে ভুল শুধরে টিটু পাগলের নাম যোগ করেন। তার আগেই তাঁকে বহুবার ‘ভালা না’ ডাক শুনতে হয়েছে!

কামরুজ্জামান রাব্বি ভালো দোতারা বাজান। লোকসংগীতের প্রতিই তাঁর ঝোঁক। আর তাঁর প্রায় প্রতিটি গানই এখন শ্রোতানন্দিত হচ্ছে। ছায়ানটে কণ্ঠ-অনুশীলন করা রাব্বি এনটিভি অনলাইনকে বললেন, ‘লোকসংগীতের কথা ও সুরে রয়েছে সারল্য। সহজের প্রতিই মানুষ আকৃষ্ট হয়। সহজে হৃদয় ছোঁয়। আর লোকসংগীতের সঙ্গে রয়েছে আমাদের মা ও মাটির যোগ, শিকড়ের অবিচ্ছেদ্য বন্ধন। না ছুঁয়ে পারেই না।’ আর তাই রাব্বিও চান সহজ কথায় গাইতে। সহজ সুরে বলতে।

রাব্বির ইউটিউব চ্যানেলটির দর্শক-শ্রোতা কম নয়। এর সাবস্ক্রাইবার এক লাখ ৯৬ হাজার। ‘আমি তো ভালো না’ গানটি তাঁর চ্যানেল থেকে ভিউ পেয়েছে ৯৬ লাখ ৫৫ হাজারের বেশিবার। ইগল মিউজিক সিটির ইউটিউব চ্যানেলে একই গান ভিউ পেয়েছে ১৫ লাখের বেশিবার। এ ছাড়া হাত ঘুরে অনেকবার প্রকাশিত হয়েছে গানটি। রাব্বি নিজেই জানালেন, প্রায় দুই কোটি ভিউ পেয়েছে তাঁর গাওয়া এ গান। বেরিয়েছে ‘আমি তো ভালা না’র দ্বিতীয় পর্ব।

তবে আজও ভিডিওতে প্রদর্শিত হচ্ছে গানটির ‘নকল’ গীতিকার মাহবুব শাহর নাম। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কামরুজ্জামান রাব্বি বলেন, ‘ক্রেডিট লাইনে আসল গীতিকার-সুরকার টিটু পাগলের নাম দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ভিডিওতে পরিবর্তন করতে হলে পুরো ভিডিওটিই বাদ দিতে হবে। তাই পরিবর্তন করা যায়নি।’ রাব্বির মতে, এ ব্যাপারে টিটু পাগলের ‘সম্ভবত কোনো অভিযোগ নেই’।

রাব্বি আরো বলেন, ‘আমি যতবার এ গানটি গায়, ততবারই টিটু পাগলের নাম স্মরণ করি। শ্রোতাদের উদ্দেশে বলি, এই গানটির প্রকৃত গীতিকার ও সুরকার টিটু পাগল।’

এবার গায়কের কাছেই জিজ্ঞাসা ছিল, রাব্বি কি ‘ভালা না’? উত্তরে হেসে এই তরুণ কণ্ঠশিল্পী বলেন, ‘নিজের সম্পর্কে যদি বলি তো, আমি ভালা না। তবে আপনারাই ভালো বলতে পারবেন।’ এর পর দার্শনিকের ভঙ্গিতে বললেন, ‘নিজেরে ভালা বলা খুব কঠিন!’

Advertisement