Beta

চা পানে কি ত্বকের রং কালো হয়?

০৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:৫০

দুধ চা ত্বকের লাবণ্য কমায়। ছবি : সংগৃহীত

অনেকেরই দিনের শুরুটা হয় এক কাপ চা দিয়ে। শরীর ও মনকে ফুরফুরে রাখতে চায়ের জুড়ি নেই। তবে অনেকে ভাবেন, চা পান করলে ত্বকের রং কালো হয়। কথাটি কি ঠিক?

এ প্রসঙ্গে কথা হয় শিওর সেল মেডিকেল বিডির চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাওহীদা রহমান ইরিনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আসলে চা মানেই আমরা বুঝি দুধ ও চিনিযুক্ত চা। চায়ে থাকে ক্যাফেইন, দুধে থাকে ক্যাজেইন। আর চিনিকে আমরা জানি হোয়াইট পয়জন হিসেবে। অর্থাৎ এটি হলো সাদা বিষ। দুধ, চিনি ও চা—এ তিনটি উপাদান একত্রে মিশিয়ে পান করলে শরীরে টক্সিন বা বিষাক্ত পদার্থ তৈরি হয়। এ ছাড়া দুধ চা ঘুমের মানকেও কমিয়ে দেয়।’

চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাওহীদা রহমান ইরিন বলেন, ‘দুধ চা পান করলে শরীরে বিষাক্ত পদার্থ তৈরি হওয়া এবং ঘুমের মান কম হওয়া দুটো বিষয় মিলে ত্বকে বিরূপ প্রভাব ফেলে। এতে সৌন্দর্যহানি হয় এবং ত্বক লাবণ্য ও উজ্জ্বলতা হারায়।’

দুধ চা পান শরীরকে পানিশূন্য করে দেয় জানিয়ে ডা. তাওহীদা বলেন, “আর এই পানিশূন্যতাও ত্বকের ক্ষতি করে। ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি থাকা খুব জরুরি।  যেহেতু দুধ চা পানে ত্বক লাবণ্য ও উজ্জ্বলতা হারায়, তাই একে অনেকে প্রচলিতভাবে বলেন, ‘চা পানে ত্বকের রং কালো হয়’।”

তবে কি চা পান করবেন না? এ প্রসঙ্গে ডা. তাওহীদা রহমান ইরিন বলেন, ‘চায়ে রয়েছে ফ্ল্যাবোনয়েড, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট। কিছু কিছু চা ত্বকের বলিরেখা কমায় ও ত্বকের উজ্জ্বলতায় বাড়ায়; ত্বকে কোলাজেন তৈরি করে। তবে এ ক্ষেত্রে আমাদের বেছে নিতে হবে দুধ ও চিনিমুক্ত চা।’

আসলে ত্বক ভালো রাখতে দুধ চায়ের পরিবর্তে পান করা যেতে পারে ভেষজ চা। যেমন : গ্রিন টি, লেবু চা, আদা চা, হলুদ চা, দারুচিনি চা, গোলাপ পাপড়ির চা বা নীল অপরাজিতার চা ইত্যাদি। এসব চা ত্বককে ভালো রাখতে সাহায্য করে বলে পরামর্শ তাঁর।

Advertisement