Beta

জয়েন্ট ব্যথার কারণ কী?

৩১ মে ২০১৯, ১৪:৫৮

ফিচার ডেস্ক
জয়েন্টের ব্যথার বিভিন্ন কারণের বিষয়ে আলোচনা করেছেন ডা. মো. নাহিদুজ্জামান সাজ্জাদ ও ডা. সাখাওয়াৎ হোসেন। ছবি : এনটিভি

জয়েন্ট ব্যথা একটি প্রচলিত সমস্যা। বিভিন্ন কারণে দেহের জয়েন্টে ব্যথা হতে পারে।

জয়েন্ট ব্যথার প্রচলিত কারণ কী, এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৪৫৩তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. মো. নাহিদুজ্জামান সাজ্জাদ। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রিউমাটোলজি বিভাগের পরামর্শক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন  : জয়েন্ট ব্যথার কারণ কী? কোন ক্ষেত্রে অনেকগুলো জয়েন্ট যুক্ত হয়? আর কোন ক্ষেত্রে একটি জয়েন্টে ব্যথা হয়?

উত্তর : আসলে আমাদের শরীরে ৩০৭টি জয়েন্ট রয়েছে। যখন কেবল একটি জয়েন্ট আক্রান্ত হয়, তখন আমরা মনোআর্টিকুলার  জয়েন্ট পেইন বলি। যখন পাঁচটির নিচে জয়েন্ট যুক্ত হয়, তখন আমরা অরিগোআর্টিকুলার বলি। এর বেশি গেলে আমরা তখন পলিগোআর্টিকুলার বলি।

জয়েন্ট আক্রমণের ধরনের ওপর আমাদের এক এক ধরনের রোগ রয়েছে। মনোআর্টিকুলারের ক্ষেত্রে দেখা যায় এটি প্রদাহের কারণে হতে পারে। কখনো কখনো এটি সংক্রমণের কারণে হতে পারে। যেমন, সেপটিক আর্থ্রাইটিস আমরা বলি। কখনো কখনো টিবির কারণে হতে পারে।

অনেক সময় দুর্ঘটনা বা আঘাতের কারণে ব্যথা হতে পারে। অনেকের হয়তো হিমোফেলিয়া রোগ রয়েছে। এদের ক্ষেত্রে দেখা যায় একটু হাঁটাহাঁটি করার কারণে জয়েন্টে হয়তো রক্ত জমে গেছে। এই ক্ষেত্রে তারা একটি জয়েন্টে ব্যথা নিয়ে আসতে পারে।

অনেক সময় আঘাত লাগার জন্য সাময়িকভাবে একটি গিঁড়ার মধ্যে ব্যথা হতে পারে। আবার যখন অনেকগুলো জয়েন্ট একসঙ্গে হয়, তখন আমাদের একটু চিন্তা করতে হয় যে অন্যান্য কোনো সমস্যা রয়েছে কি না।

এ ক্ষেত্রে একে আমরা অনেকভাবে ভাগ করি। যেমন, সংক্রমণজাতীয় কিছু কারণ রয়েছে। ভাইরাস একটি কারণ। কিছুদিন আগে আমাদের দেশে ব্যাপকভাবে চিকুনগুনিয়া আরথ্রাইটিস হলো। এতে অনেক জয়েন্ট যুক্ত হয়ে গেল। ডেঙ্গু জ্বরের ক্ষেত্রেও জয়েন্টে ব্যথা নিয়ে আসতে পারে। এমনকি লিউকোমিয়ার ক্ষেত্রেও আমাদের কাছে জয়েন্টে ব্যথা নিয়ে আসতে পারে। আবার কখনো কখনো গনোকক্কাল ইনফেকশনের কারণে এমন হতে পারে। এ ক্ষেত্রেও জয়েন্টে ব্যথা নিয়ে আসতে পারে।

রিউমাটয়েড আরথ্রাইটিস একটি রোগ রয়েছে, যার ক্ষেত্রে প্রদাহ এক একটি জয়েন্টকে আক্রান্ত করে। রিউমাটয়েড আরথ্রাইটিস যদি হয়, আমরা দেখি দুই হাতের আঙুলের জয়েন্টগুলো বেশি আক্রান্ত হয়। পাশাপাশি পায়ের জয়েন্টগুলোকে আক্রান্ত করে।

আবার স্পনডাইলোআরথ্রাইটিস রয়েছে। এখানে দেখা যায় যে মেরুদণ্ড, সঙ্গে নিচের পায়ের বড় বড় জয়েন্ট, হাঁটু, গোড়ালি, পৃষ্ঠদেশের জয়েন্টগুলো আক্রান্ত হচ্ছে।

সুতরাং জয়েন্টে ব্যথা কীভাবে আসছে, কতটা ধরল, তার উপস্থাপন কেমন, এর ওপর ভিত্তি করে আমাদের বিভিন্ন রোগ নির্ণয় করা হয়। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এক একটি রোগের চিকিৎসা এক এক রকম। তাই আমাদের অবশ্যই নির্দিষ্ট করতে হবে যে তার এই জয়েন্টে ব্যথার রোগটি কী।

Advertisement