Beta

শিশুদের কোন কোন কিডনি রোগ বেশি হয়?

২২ জুন ২০১৯, ১২:২১

ফিচার ডেস্ক
শিশুদের কিডনি রোগের বিষয়ে আলোচনা করেছেন ডা. গোলাম মাঈন উদ্দিন ও ডা. সাখাওয়াৎ হোসেন। ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় দুই কোটি মানুষ কিডনি রোগে আক্রান্ত। 

বড়দের মতো শিশুদেরও কিডনি রোগ হয়। তবে শিশুদের কোন কিডনি রোগগুলো বেশি হয়?

এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৪৬৯তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. গোলাম মাঈন উদ্দিন। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিশু কিডনি বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : শিশুদের কিডনির সাধারণত কী কী ধরনের রোগ হয়?

উত্তর : বয়স্কদের যেসব রোগ হয়, তার মধ্যে মোটামুটি সবই  শিশুদের কিডনিতে হয়। এর মধ্যে ডায়াবেটিস কম থাকে, উচ্চ রক্তচাপের কারণে কিডনি নষ্ট হওয়া কম থাকে। এগুলো ছাড়া মোটামুটি সবই হয়। শিশুদের মধ্যে যেটি বেশি হয় সেটি হলো জন্মগত ও বংশগত কিডনি রোগ। সুচিকিৎসা না হলে বড় হওয়া পর্যন্ত শিশুটি বাঁচবে না। তাই রোগগুলোর নির্ণয় করা, চিকিৎসা করা দরকার। আর কিডনি রোগের চিকিৎসা যেহেতু খুব ব্যয়বহুল, তাই রোগ প্রতিরোধ করা দরকার। সবারই এ সম্পর্কে কিছু না কিছু ধারণা থাকা দরকার।

প্রশ্ন : শিশুদের বেলায় কোন কোন কিডনি রোগ বেশি হয়?

উত্তর : কিডনি বিকল হওয়া যাকে বলি, এটি দুভাবে হয়। একটি হলো, হঠাৎ কিডনি বিকল হওয়া বা একিউট কিডনি ইনজুরি। আর দ্বিতীয় হলো, দীর্ঘমেয়াদে কিডনি বিকল হওয়া বা ক্রনিক কিডনি ইনজুরি। ডায়রিয়ার কারণে, ওষুধের জন্য, দেরিতে চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার জন্য কিডনি নষ্ট হয়ে যেত। তবে জনসচেতনতা এমন একপর্যায়ে চলে গেছে ডায়রিয়া, ডিসেনট্রি হলে মানুষ এখন স্যালাইন খায়। এখন মানুষ জানে যে পানি বেশি পান করতে হবে, স্যালাইন খাওয়াতে হবে। এখন ডায়রিয়া, ডিসেনট্রির কারণে কিডনি বিকল হওয়াটা কমে যাচ্ছে।

এ ছাড়া জন্মগত কারণে কিছু রোগ হয়। এগুলোর প্রকোপ দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। এখন হঠাৎ কিডনি বিকল হওয়া কমে যাচ্ছে, দীর্ঘমেয়াদে কিডনি বিকল বেশি হচ্ছে। ক্রনিক কিডনি ডিজিজের চিকিৎসা সব জায়গায় নেই। তাই এটা নিয়ে জানা উচিত।

Advertisement