Beta

প্রশংসা পাচ্ছে ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’

০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:১৫

নতুন চলচ্চিত্র ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’। শামীমুল ইসলাম শামীম পরিচালিত এই ছবিটি নিয়ে এরই মধ্যে প্রশংসা করছেন দর্শক ও সিনেমা হলে কর্তৃপক্ষ। ছবিতে অভিনয় করেছেন নায়িকা পরী মণি ও কায়েস আরজু। গতকাল সারা দেশের ৪২টি সিনেমা হলে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে।

গতকাল বেলা ৩টার শোতে মধুমিতা সিনেমা হলে দর্শক নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন গেটম্যান আব্দুল কদ্দুস। তিনি ১৯৯৩ সাল থেকে এই সিনেমা হলে গেটম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। এনটিভি অনলাইনকে তিনি বলেন, ‘আসলেই সিনেমার আলাদা দর্শক আছে। তা না হলে বিপিএলের ফাইনাল খেলার দিন কেন সিনেমা হলে দর্শক আসবে? আমাদের এক হাজার ২০০ আসনের মধ্যে প্রায় সাড়ে ৫০০ দর্শক হয়েছে। অথচ আবার বাসায়ই সবাই খেলা দেখার জন্য টিভির সামনে বসে আছে। শুধু দর্শক আছে তাই না, ছবিটির গল্প নিয়ে সবাই প্রশংসাও করছে।’

ছবিটি ভালো লেগেছে জানিয়ে কদ্দুস বলেন, ‘ছবি দেখাটা আমার নেশা। সব সময় প্রথম শো দেখার চেষ্টা করি। এই ছবিটিও দেখেছি। অনেক সুন্দর একটি ছবি হয়েছে। হাস্যরসের মধ্য দিয়ে ছবির গল্পটা বলেছেন পরিচালক।

ছবির বিরতি চলাকালে কথা হয় মতিঝিল জনতা ব্যাংকের পিওন রুস্তম আলীর সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘নতুন ছবি মুক্তি পেলে প্রতি শুক্রবারই ছবি দেখি। সব ছবি যে ভালো লাগে তা নয়, তবে এই ছবিটি ভালো লাগছে। মাঝেমধ্যে হাসতে হাসতে শেষ। পরী মণিকে ভূতে ধরেছে, এমন একটা সিন আছে। অনেক ভালো অভিনয় করেছে। ছবির অর্ধেক দেখলাম, গল্পটা অনেক সুন্দর। বাকিটা দেখার জন্য অপেক্ষায় আছি।’

বলাকা সিনেমা হলের বুকিং এজেন্ট মজিবুর রহমান রাজিব বলেন, ‘গতকালের চেয়ে আজ সকালের শোতে দর্শক বেশি। ছবির গল্প প্রশংসা পাচ্ছে। দর্শকও বাড়ছে। এরমধ্যে ৩টার শোতে সন্তোষজনক দর্শক আসছে। মনে হচ্ছে সপ্তাহজুড়েই ছবিটি ভালো চলবে।’ 

শামীমুল ইসলাম শামীম বলেন, ‘আমি সারা দেশ থেকেই ছবির গল্পের প্রশংসা পাচ্ছি। আমি সব সময় মনে করি দর্শক সিনেমা হলে আসেন সুন্দর একটি গল্প দেখতে। আমি এই ছবিতে তা দিয়েছি। শিল্পীরাও তার চরিত্রটা ভালোভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ।’  

ওয়ান স্টার ইন্টারন্যাশনাল মুভিজের ব্যানারে, মোজাম্মেল হক খানের প্রযোজনায় ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবিতে পরী মণি, কায়েস আরজু ছাড়া আরো অভিনয় করছেন মিশা সওদাগর, আলীরাজ, রেবেকা, ডন প্রমুখ।

Advertisement