Beta

‘সব মস্তিষ্কের টিউমার জীবনঘাতী নয়’

০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৩৩ | আপডেট: ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৪৭

ফিচার ডেস্ক
মস্তিষ্কের টিউমারের বিষয়ে কথা বলেছেন ডা. সৈয়দ ছায়ীদ আহমদ। ছবি : এনটিভি

মস্তিষ্কের টিউমার নিয়ে অনেকেই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন। তবে সব মস্তিষ্কের টিউমারেই আতঙ্কগ্রস্ত হওয়ার প্রয়োজন নেই। কিছু কিছু টিউমার সম্পূর্ণ ভালো করা সম্ভব।

মস্তিষ্কের টিউমারের বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩২৪৭তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. সৈয়দ ছায়ীদ আহমদ। বর্তমানে তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের পরিচালক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : মস্তিষ্কের টিউমারে কি এখন আমরা আতঙ্কজনক অবস্থায় রয়েছি? মস্তিষ্কের টিউমারের সার্বিক পরিস্থিতি কী?

উত্তর : মস্তিষ্কের টিউমার হলে প্রচলিত একটি বিষয় কাজ করে, অনেকে ভাবেন, আমার জীবন বোধ হয় শেষ হয়ে গেল। এতে মানুষ অত্যন্ত ভয়ংকর একটি অবস্থার মধ্যে বাস করে। আমি আশ্বস্ত করতে চাই প্রথমে, সব মস্তিষ্কের টিউমার কিন্তু জীবনঘাতী নয়। অধিকাংশ মস্তিষ্কের টিউমারের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। রোগীকে পুরোপুরি সুস্থ করে তোলা সম্ভব। তাহলে কোন টিউমারগুলোর ক্ষেত্রে এটি? আমরা যেগুলোকে বেনাইন টিউমার বলি বা ক্যানসার জাতীয় নয়, এ রকম টিউমার বলি, একে যদি পরিপূর্ণভাবে চিকিৎসা করা যায়, তাহলে ভালো হয়। আমাদের দেশে এখন যথেষ্ট ভালো ব্যবস্থা রয়েছে। এর চিকিৎসা সম্ভব।

অন্য প্রসঙ্গে আসি, যেটি ক্যানসার জাতীয় মস্তিষ্কের টিউমার, সেটি সম্পর্কে বলি। ক্যানসার জাতীয় মস্তিষ্কের টিউমারের মধ্যে পাঁচটা ভাগ রয়েছে। সেই ভাগের চার ও পাঁচে যারা থাকে, তাদের বেঁচে থাকার সময় নির্ভর করে তার বয়স, অন্যান্য শারীরিক অসুখ (যেমন : ডায়াবেটিস, কিডনি রোগ ইত্যাদি) ইত্যাদির ওপর। ওই সব টিউমারে আমরা যা কিছুই করি না কেন, সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত বেঁচে থাকার হার খুব ভালো নয়।

প্রশ্ন : আমরা যেখানে আশাহত হয়ে পড়ি, ওই সংখ্যাটা কেমন?

উত্তর : আমি বলব, প্রত্যেককেই আমি দেখেছি আতঙ্কগ্রস্ত।

প্রশ্ন : কিন্তু আতঙ্কগ্রস্ত হওয়ার সত্যিকার কারণ কত ভাগ?

উত্তর : এখন পর্যন্ত আমরা বোধ হয় ওই মাত্রায় পৌঁছাতে পারিনি তাদের নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য যে আপনি ভালো হয়ে যাবেন।

যখন তারা ভালো হয়ে যায়, তখন কিন্তু দেখা যায় যে অন্য একটি জগতেই বাস করছে।

আমি বলব, আপনি যেই সংখ্যাটা জানতে চাইছেন, সেটি সম্পূর্ণ টিউমারের ক্ষেত্রে আসতে চাইলে ১৫ থেকে ২০ শতাংশ। তার মানে মস্তিষ্কের টিউমার হলেই আতঙ্কগ্রস্ত হওয়ার কারণ নেই।

Advertisement