Beta

নবজাতকের বমি : কখন উদ্বিগ্ন হবেন?

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৫৯

ফিচার ডেস্ক
নবজাতকের যত্নের বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছেন ডা. আবু তালহা। ছবি : এনটিভি

সাধারণ থেকে গুরুতর কারণের জন্য নবজাতক বা শিশুর বমির সমস্যা হতে পারে। নবজাতকের বমির সমস্যার কারণ ও করণীয় বিষয়ে কথা বলেছেন ডা. আবু তালহা।

বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হসপিটালে শিশু বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত। এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩৫৫০তম পর্বে সাক্ষাতকারটি প্রচারিত হয়।

প্রশ্ন : নবজাতকের বমি হলে করণীয় কী? এটি কখন উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো?

উত্তর : এখানে কয়েকটি বিষয়। একটি হলো, বমি করছে। বমি স্বাভাবিকভাবে করতে পারি, আবার কিছু মেডিকেল বা সার্জিক্যাল অবস্থায় হলে করতে পারে। আমি যেটি বলব, কোনো একটি বাচ্চা যদি খাওয়ার পরপরই বমি করে, তখন আবার দেখতে হবে, এটি কখন থেকে শুরু হলো।

দেখা গেল, ১০ থেকে ১৫ মিনিট ধরে আপনি একটি বাচ্চাকে খাওয়াবেন, যদি দেখা যায়, ৩০ থেকে ৪০ মিনিট খাওয়াচ্ছেন, সেক্ষেত্রে বাচ্চার বেশি খওয়া হয়ে যাবে। সে বমি করতে পারে। যদি দেখা যায়, বাচ্চা বমি করছে, বাচ্চার ওজন বাড়ছে না, বাচ্চার জ্বর আসছে, অথবা দেখা যায়, বাচ্চার পেটের মধ্যে চাকা আসছে, এর সঙ্গে রক্ত পড়ছে, সে ক্ষেত্রে আপনাকে স্বাভাবিক চিন্তা করা যাবে না। আপনাকে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

বুকের দুধ খাওয়ানোর ক্ষেত্রে আরেকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে, অঙ্গবিন্যাস ও কতটুকু সংযুক্ত থাকছেন। আরেকটি বিষয় হলো, শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোর পর একটু হাঁটাহাঁটি করতে হবে। হালকা করে একটু ঝাঁকাবে। বাচ্চাটিকে ঢেকুর তোলাতে হবে।

যখনই একটি বাচ্চাকে খাওয়াবেন, এরপর বাচ্চাটিকে কোলে করে ঘাড়ের কাছে নিয়ে অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিট হাঁটবেন। সে যদি ঢেকুর তোলে, তাও হাঁটবেন, নাও তুললেও হাঁটবেন।

Advertisement