Beta

বাতাসে আসছে অসুখ, কী করবেন

০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:২২

বায়ুদূষণের কারণে ফুসফুসে প্রদাহ হতে পারে। ছবি : সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের পরিবেশ সংরক্ষণবিষয়ক সংস্থার (ইপিএ) সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী, বায়ুদূষণে বাংলাদেশ দ্বিতীয়। দেশে বায়ুদূষণ বাড়ছে, আর তাতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মানুষ। আক্রান্ত হচ্ছে নানা রোগব্যাধিতে।

বায়ুদূষণের কারণে হওয়া রোগব্যাধির বিষয়ে কথা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের ডিন অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহর সঙ্গে।

অধ্যাপক ডা. আবদুল্লাহ বলেন, ‘পরিবেশদূষণ, বায়ুদূষণ বাড়ছে।  পরিবেশদূষণের কারণে শ্বাসযন্ত্র ও ফুসফুসের বিভিন্ন সমস্যা হয়। শ্বাসকষ্ট, ব্রঙ্কাইটিস, ব্রঙ্কিয়াল অ্যাজমা, সিওপিডি, ফুসফুসের প্রদাহ ইত্যাদি রোগের প্রকোপ বাড়ে। রাইনাইটিস বা নাক বন্ধ হওয়ার সমস্যা হয়। ধুলাবালির সঙ্গে রোগ-জীবাণু ঢুকে নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কনিউমোনিয়া হতে পারে। আর যাঁরা আগে থেকে এ জাতীয় রোগে ভোগেন, তাঁদের সমস্যা বেশি হয়। এ ছাড়া ধুলাবালিতে চর্মরোগ, অ্যালাজি বাড়ে। ধুলাবালি চোখে গেলে, প্রদাহ, কনজাংটিভাইটিস, সংক্রমণ ইত্যাদি হয়।’

করণীয়

এসব রোগ প্রতিরোধে করণীয় কী, এ বিষয়ে অধ্যাপক ডা. আবদুল্লাহ বলেন,  ‘এসব রোগ প্রতিরোধে ধুলাবালিতে যত কম যাওয়া যায়, ততই ভালো। যাদের বাধ্য হয়ে কাজ করতে হয়, বাইরে যেতে হয়, তাদের মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। যাঁরা আগে থেকে অ্যাজমা, সিওপিডি ইত্যাদি রোগে ভুগছেন, তাঁদের চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চলতে হবে। সমস্যা হলে দ্রুত চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন। ত্বকের সমস্যা রোধে বাইরে থেকে ফিরে হাত-মুখ ভালোভাবে ধুয়ে নেবেন। আর চোখের সমস্যা প্রতিরোধে সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারেন।’

এ ছাড়া এসব রোগ প্রতিরোধে প্রবীণ ও শিশুদের প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হওয়াই ভালো বলে মনে করেন তিনি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement