Beta

ফেসবুক ব্যবহার কখন আসক্তির পর্যায়ে পড়ে?

১০ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:০৪

ফিচার ডেস্ক
ফেসবুকে আসক্তির বিষয়ে আলোচনা করছেন ডা. ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম ও ডা. সাখাওয়াৎ হোসেন। ছবি : এনটিভি

কোনো বিষয় আমাদের টান বা ভালোলাগা অতিরিক্ত হলে এবং এটি একপর্যায়ে স্বাভাবিক কাজকে ব্যহত করলে একে আসক্তি বলে। বর্তমানে অনেককেই ফেসবুক, ইন্টারনেটের প্রতি আসক্ত হতে দেখা যায়। কখন ফেসবুক ব্যবহার আসক্তির পর্যায়ে পড়ে?   

এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩২২১তম পর্বে কথা বলেছেন ডা. ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম। বর্তমানে  আমর্ড ফোর্সেস মেডিকেল  কলেজে মনোরোগ বিদ্যা বিভাগে বিভাগীয় প্রধান হিসেবে কর্মরত তিনি।

প্রশ্ন : ফেসবুকের ব্যবহার কত সময় হলে বা কী ধরনের হলে একে আসক্তি বলবেন?

উত্তর : আসলে আসক্তি কথাটি বলতে গেলে কিছু ব্যাখ্যা দিতে হবে। আসক্তিটা কী? আমার কোনো কাজকর্ম- সেটি ফেসবুক হোক, মাদক হোক বা যাই হোক- যদি আমার প্রয়োজনীয় কাজকর্মের তুলনায় বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে যায়, তাহলে এটি কিন্তু আসক্তির পর্যায়ে চলে আসল। এরপর আমার খুশির  জন্য, আমার সুখে থাকার জন্য আমি এর মধ্যেই বেশি জোর দিচ্ছি, দৈনন্দিন তার ব্যবহার আমি বাড়িয়ে দিচ্ছি। সেই ব্যবহারটা যদি আমি ঠিক মতো না করতে পারি তাহলে অসুস্থ হয়ে যাচ্ছি, অসহিষ্ণুতা দেখাচ্ছি। আমার দৈনন্দিন ব্যক্তিগত, পারিবারিক, পেশাগত কাজগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যাচ্ছে, এই যদি অবস্থা থাকে, তাহলে এটি আসক্তি।

এটা কিন্তু সেভাবে বলা যাবে না যে আধাঘণ্টা ব্যবহার করল বা এক ঘণ্টা ব্যবহার করল এটা আসক্তি। আপনার যদি দিন দিন এর ব্যবহার বাড়ে, ব্যবহার যদি কমাতে চান আপনি পারেন না। কমাতে তো পারেন না-ই, আপনি অস্থির হয়ে যান, তখন আমরা একে আসক্তি বলি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement